অল্পবয়সে যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছিলেন আমির কন্যা

|

অল্পবয়সে যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছিলেন আমির কন্যা

গত ৪ বছর ধরে মনোবিদের তত্ত্বাবধানে রয়েছেন হতাশাগ্রস্ত ইরা খান। নিজের ডিপ্রেশনের কথা কখনও লুকায়নি আমির খানের মেয়ে। সোশ্যাল মিডিয়ায় আগেও নিজের মনের কথা খুলে বলেছেন তিনি। এবার তিনি জানালেন, তার এই হতাশাগ্রস্ত হওয়ার পিছনে ঠিক কী কারণ রয়েছে। আর সেই প্রসঙ্গেই ১৪ বছর বয়সে নিজের শ্লীলতাহানি হওয়ার কথাও জানান তারকা-কন্যা। খবর সংবাদ প্রতিদিনের।

রোববার ইনস্টাগ্রামে একটি দীর্ঘ ভিডিও শেয়ার করে গোটা বিষয়টি খুলে বলেছেন ইরা। তিনি বলেন, আমি যখন ১৪ বছরের ছিলাম, আমাকে যৌন হেনস্থা করা হয়েছিল। এটা একটা বিচ্ছিন্ন ঘটনা কারণ আমি বুঝতেই পারছিলাম না যে লোকটা কী করছে। ইনস্টাগ্রামে প্রায় ১০ মিনিটের একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন ইরা। যেখানে জীবনের নানাদিকের কথা বলেছেন।

ইরার সেই ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

ভিডিওতে ইরা জানান, অদ্ভুত একটা পরিস্থিতির মধ্যে পড়েছিলেন তিনি। বয়স কম ছিল। তাই বুঝতে পারছিলেন না ঠিক কী হচ্ছে। তারা জেনেশুনেই এমনটা করছিল কি না। এমন অচেনা অভিজ্ঞতায় বেশ হতাশ হয়ে পড়েছিলেন। গোটা বিষয়টা বাবা আমির খান ও মা রিনা দত্তকে জানান ইরা।

আমির-কন্যা বলেন, এটা প্রায় এক বছর চলার পর আমি বুঝতে পেরেছিলাম যে ওরা জেনেবুঝেই করছে। আমার বাবা-মা আমাকে ওই সিচুয়েশন থেকে বের করে আনে। সেখান থেকে বেরিয়ে আসার পর আর কখনও সেটা নিয়ে খারাপ লাগেনি। আমি ভয়ও পাইনি। আমার মনে হয়েছিল যে, যাক এটা আর আমার সঙ্গে হবে না। আমি সেখান থেকে এগিয়ে যাই। তবে এটা কিন্তু সারা জীবনের জন্য আমার একটা খারাপ লাগা হয়ে রয়েছে তা নয়।

ইরা এই ভিডিওতে আমির ও রিনার ডিভোর্স নিয়েও কথা বলেছেন। তার কথায়, আমি তখন ছোট ছিলাম যখন আমার বাবা-মায়ের ডিভোর্স হয়। তবে এটার জন্য সারাজীবন আমি আতঙ্কে দিন কাটিয়েছি তা নয়।

সম্প্রতি ছোটবেলার এমন ভয়াবহ অভিজ্ঞতার কথা বলেন ফাতিমা সানা শেখ। ‘দঙ্গল’ ছবিতে আমির খানের মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেন ফাতিমা সানা শেখ। পরের ছবি ‘থাগস অব হিন্দুস্তান’-এ পরম্পরের বিপরীতে অভিনয় করেন।









Leave a reply