কলারোয়ায় বৃদ্ধকে হত্যার ঘটনায় ‘জামাতা’ গ্রেফতার; ছুরি ও হ্যান্ড গ্লাভস উদ্ধার

|

নিজস্ব প্রতিনিধি:

সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার দেয়াড়া ইউনিয়নের বিশ্বাসপাড়ায় কৃষক মোসলেম উদ্দীন বিশ্বাসকে (৬০) গলা কেটে হত্যার ঘটনায় ব্যবহৃত ছুরি ও হ্যান্ড গ্লাভস উদ্ধার করেছে পুলিশ। একই সাথে হত্যাকাণ্ডের সময় হত্যাকারীর শরীরে পরিহিত জ্যাকেট ও কাদামাখা প্যান্ট উদ্ধার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় গ্রেফতার নিহত মোসলেম উদ্দীন বিশ্বাসের ছোট জামাতা দেয়াড়া দাখিল মাদরাসার শিক্ষক আবুল কালাম আজাদের দেওয়া তথ্য মতে শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) বিকালে নিহতের বাড়ির ৫০০ গজ দূরের একটি পুকুর থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরি ও হ্যান্ড গ্লাভস উদ্ধার করা হয়। পরে দেয়াড়া খানপাড়া থেকে গ্রেফতার আবুল কালাম আজাদের ভাইপো হাবিবুরের ঘর থেকে উদ্ধার করা হয় তার জ্যাকেট ও কাদামাখা প্যান্ট।

সাতক্ষীরা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মীর্জা সালাউদ্দিন জানান, হত্যাকাণ্ডের পরপরই পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এবং হত্যাকাণ্ডের রহস্য উন্মোচনে প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে তদন্ত শুরু করে। তদন্তের এক পর্যায়ে শুক্রবার সকালে গ্রেফতার করা হয় নিহত মোসলেম উদ্দীন বিশ্বাসের ছোট জামাতা দেয়াড়া দাখিল মাদরাসার শিক্ষক আবুল কালাম আজাদকে।

তিনি বলেন, তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক নিহতের বাড়ির ৫০০ গজ দূরের একটি পুকুর থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরি ও হ্যান্ড গ্লাভস উদ্ধার করা হয়েছে। একই সাথে তার ভাইপোর ঘর থেকে হত্যাকাণ্ডের সময় তার গায়ে থাকা জ্যাকেট ও কাদামাখা প্যান্ট উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রেফতার আবুল কালাম আজাদকে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দির জন্য আদালতে পাঠানো হবে।

প্রসঙ্গত, গত ২৪ নভেম্বর দিবাগত রাতের কোনো এক সময় বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে কৃষক মোসলেম উদ্দীন বিশ্বাসকে গলা কেটে হত্যা করা হয়।

ইউএইচ/









Leave a reply