নবাবগঞ্জে ১৫ দিন পর অপহৃত ছাত্রের লাশ উদ্ধার: কিশোর গ্রেফতার

|

নিহত হৃদয় হোসেন।

ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলার জয়কৃষ্ণপুর ইউনিয়নের ঘোষাইল গ্রামের প্রবাসী নজরুলের ছেলে কলেজ ছাত্র হৃদয় হোসেনের (১৭) অপহরণের ১৫ দিন পর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় পুলিশ একজনকে গ্রেফতার করেছে।

শনিবার রাত ২টা ৩০ মিনিটের সময়ে পার্শ্ববর্তী আর ঘোষাইল গ্রামের একটি পুকুর থেকে নবাবগঞ্জ থানা পুলিশের একটি দল তার লাশ উদ্ধার করে। গত ১৪ নভেম্বর অপহরণ হয় ওই কলেজ ছাত্র।

নিহতের স্বজনরা জানায়, গত ১৪ই নভেম্বর বিকেল ৫টায় নিজ বাড়ি থেকে বাইরে গেলে তার পরিবার তাকে আর খুঁজে পায়নি। এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত শাওন মোল্লাকে (২০) পুলিশ গ্রেফতার করেছে। শাওন আর ঘোষাইল গ্রামের সাইদুল মোল্লার ছেলে।

মৃত হৃদয়ের মা ময়না বেগম বলেন, তার ছেলেকে গত ১৪ নভেম্বর অপহরণের পর তার ব্যবহারকৃত মোবাইল সংযোগ বন্ধ পাওয়া যায়। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্ধান পাওয়া যায়নি। পরে ২২ নভেম্বর আমার ছেলে মোবাইল থেকে ফোন করে অপহরণকারীরা। ৫ লাখ টাকা চায়। আমি তাদের দেওয়া বিকাশ নাম্বারে ১০ হাজার টাকা পাঠাই। কিন্তু তাদের ৫ লাখ টাকা দিতে না পারায় আমার ছেলেকে ওরা হত্যা করে।

ওসি মো. সিরাজুল ইসলাম শেখ বলেন, এই এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত শাওন মোল্লাকে (২০) পুলিশ গ্রেফতার করেছে। শাওন তার দোষ স্বীকার করেছে পুলিশের কাছে।









Leave a reply