আরও ৮টি হজ ফ্লাইটের অনুমতি পেল বিমান

|

শেষমুহূর্তে ৮টি অতিরিক্ত হজ ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি পেয়েছে বাংলাদেশ বিমান। এতে করে মুসল্লিদের পরিবহনে জটিলতা অনেকাংশে কমবে বলে আশা করা হচ্ছে। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের দাবি, বাড়তি ফ্লাইট দিয়ে ভিসা পাওয়া সবাইকে সৌদি আরব পাঠানো হবে। এখন পর্যন্ত ৩৩৭ ফ্লাইটে ১ লাখ ১৪ হাজারের বেশি যাত্রী সৌদি আরব পৌঁছেছেন।

অনেক আশা নিয়েও হজ ফ্লাইটে ওঠার প্রস্তুতি নিবেন সে সুযোগই হয়নি অনেক মানুষের। গণমাধ্যমকর্মীদের দেখলেই ছুটে আসছেন তারা। এজেন্সির প্রতারণার শিকার টাঙ্গাইলের শফিকুল ইসলাম চারদিন ধরে আছেন আশকোনা হজ ক্যাম্পে। যাত্রা অনিশ্চিত, এর মধ্যেই সাথে থাকা ৯০ হাজার টাকা লাপাত্তা।

তিল তিল করে জমানো টাকায় শেষ বয়সের হজ করবেন এমন আশা করে এসেছেন অনেক প্রবীণ মুসল্লি। এজেন্সি ও মোয়াল্লেমরা সঠিক খবর না দেয়ায় ধৈর্যের বাঁধ ভেঙেছে তাদের। চোখের জল সামলাতে পারছেন না কেউ কেউ।

ভিসা পেয়েও মক্কা-মদিনা যাওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তার দোলাচলে চার হাজারের বেশি যাত্রী। ক্ষুব্ধ অনেকেই মিছিল করেছেন হজ ক্যাম্পের বাইরে। প্রতারক এজেন্সি এবং দালালদের শাস্তির পাশাপাশি হজে যেতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়েছেন তারা।

সাত হাজারের বেশি যাত্রীকে নিয়ে তৈরী হওয়া জটিলতা নিরসনে সৌদি দূতাবাসের দিকে তাকিয়ে আছে সরকার।  নতুনভাবে চলছে দরকষাকষি। নীতিনির্ধারকেরা বলছেন, ভিসা পাওয়া সবযাত্রীকে সৌদি আরব নেয়া হবে।

ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটি সভাপতি বজলুল হক হারুন বলেন, ভিসা পাওয়া সব হজযাত্রীকে সুযোগ করে দিতে আমরা সবার্ত্মক চেষ্টা করছি।

১ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হবে হজের মূল আনুষ্ঠানিকতা।

যমুনা অনলাইন: টিএফ

 









Leave a reply