শান্ত-ইমনের ঝড়ে রাজশাহীর সংগ্রহ ২২০

|

টস জিতে মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহীকে আগে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানিয়ে ভুলটা করে বসলেন ফরচুন বরিশালের অধিনায়ক তামিম ইকবাল। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই ঝড়ো ব্যাটিং করেছেন রাজশাহীর অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত আর আনিসুল ইসলাম ইমন। ইমন ৬৯ রানে আউট হলেও টুর্নামেন্টের প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নেন নাজমুল হোসেন শান্ত। তাদের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে রাজশাহী ৭ উইকেট হারিয়ে টুর্নামেন্ট সর্বোচ্চ ২২০ রান তোলে স্কোরবোর্ডে।

বল হাতে ইনিংসের প্রথম ওভার করতে আসেন তাসকিন আহমেদ। প্রথম ওভারে দিলেন মাত্র ৭ রান। এরপর মেহেদি হাসান মিরাজ বল করতে এসে দিলেন মাত্র ৩। তবে তৃতীয় ওভার থেকে খেলার চিত্র বদলাতে শুরু করলো।

মাত্র ৩২ বলে দলীয় সংগ্রহ ৫০ করেন ইমন ও শান্ত। আর ১০ ওভারে ১০৭ করে রাজশাহী কোনো উইকেট না হারিয়েই। এর ভেতর ২৫ বলে অর্ধশতক তুলে নিয়েছেন আনিসুল ইসলাম ইমন। আর ঠিক পরের ওভারে মিরাজের বলে ছক্কা উড়িয়ে ৩১ বলে অর্ধশতক পূর্ণ করেন শান্ত।

ইনিংসের ১৩তম ওভারে এসে সুমন খানের বলে আফিফের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ইমন। তবে তার আগে ৩৯ বলে ৭টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৬৯ রানে আউট হন ইমন। তিনি ফিরলেও উইকেটের আরেক প্রান্তে তাণ্ডব চালাতে থাকেন শান্ত। তার তাণ্ডবে ১৬ ওভারেই ১৮০ রান তুলে ফেলে রাজশাহী।

তবে ১৭তম ওভারে সুমন খান রনি তালুকদারকে (১৮) তুলে নেন আর পরের বলে রান আউট হয়ে ফেরেন মেহেদি হাসান। তাতেই রানের চাকা কিছুটা ধীর হয়ে যায় রাজশাহীর। ইনিংসের ১৯তম ওভারের ২য় বলে তাসকিনকে ছক্কা উড়িয়ে শতক পূর্ণ করেন শান্ত। শেষ পর্যন্ত শান্ত আউট হন ৫৫ বলে ১০৯ রানে। ইনিংস সাজান ৪টি চার ও১১টি ছক্কায়। আর রাজশাহীর সংগ্রহ দাঁড়ায় নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ২২০ রান।

শেষ ওভারে কামরুল ইসলাম রাব্বি হ্যাটট্রিক করলেও রানের পাহাড় গড়া থেকে থামাতে পারেননি। শেষ ওভারে রাব্বি নুরুল হোসেন সোহান, শান্ত (১০৯) ও ফরহাদ রেজার উইকেট তুলে নিয়ে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন। আর মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনকে তুলে নিয়ে এক ওভারে মোট চারটি উইকেট তুলে নেন তিনি। এছাড়াও ২টি উইকেট নেন সুমন খান।

ইউএইচ/









Leave a reply