বিয়ের আগে করোনায় আক্রান্ত হয়ে কনের মৃত্যু

|

স্টিফানি লিন স্মিথ।

বিয়ের জন্য সবকিছু ঠিকঠাক। তার আগে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন কনে। যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে এ ঘটনা ঘটেছে। ডেইলি মেইলের প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ পেয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, জ্যামি ব্যাসেট নামে এক তরুণের সঙ্গে প্রেম ছিল ২৯ বছর বয়সী স্টিফানি লিন স্মিথের। বিয়ের দিন হিসেবে ১৩ নভেম্বরকে বেছে নিয়েছিলেন তারা। বিয়ে নিয়ে ব্যস্ততার মধ্যে অসুস্থ হয়ে পড়েন স্টিফানি। শরীরে খোস পাঁচড়ার মতো দেখা দেয় এবং প্রচণ্ড ব্যথা শুরু হয়।

তার মা ওরালিয়া স্মিথ বলেন, বিয়ে নিয়ে সে চিন্তায় ছিল। চিকিৎসকের কাছে গেলে ওষুধও দেয়া হয়। কিন্তু তার শারীরিক অবস্থা আরও অবনতি ঘটে। এ পরিস্থিতিতে প্রেমিক জ্যামি তাকে হাসপাতালে ভর্তি করায়। সেখানে স্টিফানির কোভিড-১৯ পরীক্ষায় পজেটিভ আসে এবং নিউমোনিয়া ধরা পড়ে। হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরার পরদিন তার শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা কমে যায়। আবারও তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

স্টিফানির মা জানান, বিয়ের দিন হাসপাতালেই কাটাতে হয় মেয়েকে। সে তখন করোনার সঙ্গে যুদ্ধ করছিল। বিয়ের দিন স্টিফানির সঙ্গেই হাসপাতালে কাটান জ্যামি। ১৮ নভেম্বর পরিবার ও প্রেমিক জ্যামিকে হাসপাতাল থেকে ফোন দেয়া হয়।

৩১ বছর বয়সী জ্যামি জানান, তখন খারাপ কিছু নিয়ে আশঙ্কা হয় তার। কারণ মৃত্যুর পথে থাকা রোগীকে শেষবারের মতো দেখতে পরিবারকে ফোন দেয়া হয়। হাসপাতালে গিয়ে দেখেন তার আশঙ্কাই সত্যি হয়। না ফেরার দেশে চলে গেছেন প্রেমিকা স্টিফানি। তাকে আর আংটি পরানো হয়নি জ্যামির।









Leave a reply