খাগড়াছড়িতে কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে তিন যুবকের মৃত্যুদণ্ড

|

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়িতে এক ত্রিপুরা কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে তিন যুবককে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত। দুপুরে জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক আবু তাহের-এর আদালত এ রায় দেন। একই সাথে প্রত্যেককে ১ লাখ টাকা করে অর্থদণ্ড দেয়া হয়।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন, রুমেন্দ্র ত্রিপুরা ওরফে রুমেন, ত্রিরন ত্রিপুরা ও কম্বল ত্রিপুরা। রায় ঘোষণার সময় দুই আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায় ঘোষণার পর তাদের পুনরায় জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। দণ্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে কম্বল ত্রিপুরা পলাতক থাকায় তাকে আদালতে হাজির করা
হয়নি।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৯ সালের ১৩ মে জেলা সদরের ভাইবোনছড়া ইউনিয়নের বড় পাড়া এলাকার বাসিন্দা মন মোহন ত্রিপুরা ও তার স্ত্রী স্বরলেখা ত্রিপুরা মেয়েকে তাদের নিজ ঘরে রেখে দীঘিনালা উপজেলায় বেড়াতে যান। সে সুযোগে ঐদিন রাতে একই ইউনিয়নের বেজাচন্দ্র পাড়ার তিন মদ্যপ যুবক ঘরে ঢুকে মন মোহন ত্রিপুরার ১৭ বছরের মেয়েকে ধর্ষণের পর হত্যা করে। ধর্ষণের আগে কিশোরীর মাকে ফোন করে তারা। পরের দিন সকালে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় পুলিশ তিন ধর্ষককে গ্রেফতার করে।

এ ঘটনায় কিশোরীর মা স্বরলেখা ত্রিপুরা তিন যুবককে আসামী করে সদর থানায় মামলা করে। তদন্তের পর পুলিশ একই বছর ২৮ আগস্ট আদালতে চার্জশীট দাখিল করে। মামলায় ২২ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করে আদালত।

রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে খাগড়াছড়ির পাবলিক প্রসিকিউটর এডভোকেট বিধান কানুনগো বলেন, আসামীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় আদালত প্রত্যেক আসামীকে মৃত্যুদণ্ড ও প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে অর্থদণ্ড দিয়েছে।









Leave a reply