হোয়াটসঅ্যাপে থাকতে তথ্য দিতেই হবে ফেসবুককে

|

বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় মেসেজিং অ্যাপ্লিকেশন হোয়াটসঅ্যাপ তার ব্যবহারকারীদের ফেসবুকের সঙ্গে তথ্য শেয়ার করতে বাধ্য করছে। প্রাতিষ্ঠানিক পপ আপ মেসেজের মাধ্যমে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের জানাচ্ছে- ফেসবুকের সঙ্গে তথ্য শেয়ার করার আপডেটটি তারা একসেপট না করলে প্ল্যাটফর্ম ছেড়ে চলে যেতে হবে।

এদিকে, ফেসবুকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এখনো ইউরোপ এবং যুক্তরাজ্যভিত্তিক হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীরা ওই নতুন পপ আপ মেসেজটি দেখতে পাচ্ছেন না। তবে ফেব্রুয়ারির মধ্যেই তাদেরকেও এই চুক্তি একসেপ্ট করতে হবে।

এর আগে, হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের জন্য ফেসবুকের সঙ্গে তথ্য শেয়ার করার বিষয়টি ঐচ্ছিক ছিল। এখন নতুন বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে তথ্য শেয়ার করা বাধ্যতামূলক করা হলো।

অপরদিকে, বিজ্ঞপ্তিটিতে তিন ক্ষেত্রে আপডেটের কথা উল্লেখ রয়েছে।

এক- হোয়াটসঅ্যাপ পরিষেবা ও গ্রাহকের তথ্য তারা যেভাবে ‘প্রসেস’ করে থাকে।
দুই- ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো কীভাবে ফেসবুকের পরিষেবাগুলো এবং হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট সংরক্ষণ ও ব্যবহার করতে পারবে।
তিন- ফেসবুকের সঙ্গে তাদের অংশীদারিত্ব কী ধরনের, কীভাবে ফেসবুকের আয়ত্ত্বাধীন অন্যান্য প্রতিষ্ঠানকে তারা তথ্য সরবরাহ করে থাকে।

ওদিকে কয়েক বছর ধরেই আর্থিক লেনদেন পরিষেবার দিকে মনোনিবেশ করেছে ফেসবুক। সেই লেনদেন সংক্রান্ত বার্তা বিনিময় হবে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে। সেই সব বার্তা নিজের মতো করে ব্যবহার করতে বা সংরক্ষণ করে রাখতে হবে সংশ্লিষ্ট ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে। সে কারণেই, তথ্যের গোপনীয়তা সংক্রান্ত শর্তাবলি উপযোগী করতে হচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপকে।

এবার হোয়াটসঅ্যাপ সরাসরি জানিয়ে দিয়েছে, ব্যবহারকারীর নাম, ফোন নম্বর, ফোনের তথ্য, আইপি অ্যাড্রেস, ব্যবহারকারীর বার্তা বিনিময়ের ধরন, লেনদেন তথ্যসহ অন্যান্য কিছু তথ্য তারা এখন থেকে ফেসবুকের অন্য সংস্থাগুলোর সঙ্গে শেয়ার করবে। এটি তারা কখনো সরাসরি করবে আবার কখনো অনুমতি নিয়ে করবে বলে জানানো হয়েছে।









Leave a reply