জানুয়ারির শেষে আসতে পারে সেরাম’র ভ্যাকসিন: স্বাস্থ্য অধিদফতরকে বেক্সিমকো

|

সেরাম ইন্সটিটিউটের উৎপাদিত অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার করোনা ভ্যাকসিন এই মাসের ২১-২৫ তারিখের মধ্যে দেশে নিয়ে আসা হবে বলে স্বাস্থ্য অধিদফতরকে জানিয়েছে ভ্যাকসিনটির আমাদনিকারক প্রতিষ্ঠান বেক্সিমকো।

আজ সোমবার ভ্যাকসিন পাওয়ার বিষয়ে আপডেট ও প্রস্তুতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে এমনটা জানান স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক এবিএম খুরশিদ আলম।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ভ্যাকসিন দেশে পৌছানোর পর দুই দিন ওয়্যার হাউজে সংরক্ষণ করা হবে। তারপর জেলা ভিত্তিক ভ্যাকসিন পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

আরও জানানো হয়, প্রথম ডোজের ৮ সপ্তাহের ব্যবধানে দেয়া হবে দ্বিতীয় ডোজন ভ্যাক্সিন। প্রাথমিকভাবে আসা ৫০ লক্ষ ডোজ পুরোটাই দেয়া হবে প্রথম ধাপে, তারপর দ্বিতীয় ধাপের ভ্যাকসিন পরবর্তী চালানে আনা হবে।

এসময় ভ্যাকসিন দেয়ার জন্য নির্ধারিত কেন্দ্রে জনসাধারণকে ভীড় তৈরি না করার পরামর্শও দেয়া হয়। বলা হয়, পর্যায়ক্রমে দেশের সকল নাগরিককে ভ্যাকসিন দেয়ার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে।









Leave a reply