সুচিকে নিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর উদ্বেগ

|

মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি জে ব্লিংকেন। দেশটির প্রেসিডেন্টসহ জাতীয় নেতা অং সান সুচিকে সেনাবাহিনীর আটকের পরে এক বিবৃতিতে তিনি এ কথা জানান তিনি।

সোমবার সকালে ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্র্যাসি (এনএলডি) প্রধান নেতা সুচিসহ বিভিন্ন প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীদের আটক করে দেশটির সেনাবাহিনী। এরই ধারাবাহিকতায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, আমরা মিয়ানমারে আটক সকল নেতাদের মুক্তি আশা করছি। সেইসাথে নভেম্বরে গণতান্ত্রিক নির্বাচনের মাধ্যমে বার্মার জনগণের ইচ্ছাকে সম্মান করার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি। কারণ সুচি গণতান্ত্রিকভাবেই নির্বাচিত নেতা।

একইসাথে দেশটির সামরিক বাহিনীর প্রতি স্বাধীনতা, শান্তি এবং উন্নয়ন বজায় রাখারও আহ্বান জানান মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্লিংকেন।

সোমবার সকালের অভিযানে আটক করা হয় প্রেসিডেন্ট উইন মিন্টসহ আরও কয়েকজন এনএলডি নেতাকে। বিবিসি বলছে, রাজধানী নাইপিদো ও ইয়াঙ্গুন শহরের রাস্তায় চলছে সেনাবাহিনীর টহল। বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে রাজধানীর টেলিফোন ও ইন্টারনেট সংযোগ। জরুরি অবস্থা জারি হয়েছে তার পরপরই।

সামরিক অভ্যুত্থানের আশঙ্কায় গত কয়েকদিনের অস্থিরতার মধ্যেই ঘটলো এমন ঘটনা। গত নভেম্বরের নির্বাচনের পর থেকেই মূলত অস্থিতিশীল দেশটির পরিস্থিতি। ভোটে সুচির দল এনএলডি সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করলেও জালিয়াতির অভিযোগ তোলে সেনাবাহিনী।









Leave a reply