সুগারমিলে আখ দেয়াকে কেন্দ্র করে ট্রাক্টর চালককে পিটিয়ে হত্যা, বাপ ছেলে গ্রেফতার

|

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি :

ঠাকুরগাঁও সুগার মিলে আখ দেয়ার সিরিয়ালকে কেন্দ্র করে সুরেশ চন্দ্র রায় (৫৫) নামে এক ট্রাক্টর চালককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। শহরের রোড এলাকার সুগার মিলে সোমবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় আব্দুর রহিম (৫৫) ও তার ছেলে সোহাগ আলীকে (১৯) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নিহত সুরেশ চন্দ্র রায় দিনাজপুর জেলার বোচাগঞ্জ মুর্শিদাহাট গ্রামের সবিন্দ্র নাথ রায়ের ছেলে।

আটককৃত আব্দুর রহিম দিনাজপুর জেলার বোচাগঞ্জ উপজেলার মুর্শিদাহাট গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে এবং সোহাগ আলী আব্দুর রহিমের ছেলে। ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি তানভিরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে ওসি জানান, সোমবার রাতে দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ সুগারমিল বন্ধ হওয়ায় সেই এলাকার আখ বোচাগঞ্জ সুগারমিলের ট্রাক্টরে করে ঠাকুরগাঁও সুগার মিলে নিয়ে আসেন চালক সুরেশ চন্দ্র রায়। ঠাকুরগাঁও সুগারমিলের অভ্যন্তরে আখ দেওয়ার সিরিয়াল নিয়ে সুরেশ চন্দ্রের সাথে আরেক ট্রাক্টর চালক আব্দুর রহিমের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে আব্দুর রহিম ও তার ছেলে সোহাগ মিলে সুরেশকে আখ দিয়ে পিটিয়ে জখম করে। পরে স্থানীয়রা গুরুতর অবস্থায় সুরেশকে উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন রাত ১২টার দিকে সুরেশের মৃত্যু হয়।

ওসি আরও জানান, মঙ্গলবার দুপুরে মৃতদেহ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় আব্দুর রহিম ও তার ছেলে সোহাগকে আসামি করে সদর থানায় একটি হত্যা মামলা করেছে নিহত সুরেশ চন্দ্রের ছেলে মিলন রায়।

ইউএইচ/









Leave a reply