ব্যাট হাতে সামর্থের প্রমাণ কী দিতে পারবেন মিথুন?

|

প্রথম টেস্টে দলে ছিলেন না মিথুন আর সৌম্য। সাকিবের বদলে সৌম্য আর সাদমানের বদলি হিসেবে দলে রাখা হয়েছে মিথুনকে। তবে সৌম্য সাকিবের অভার পুরন করতে পারেনি ব্যাট হাতে। বল হাতে একটি উইকেট পেলেও ব্যাট হাতে মেরেছেন শুন্য।

তবে যে মিঠুন কে নিয়ে এত সমালোচনা হয় সামাজিক ম্যাধ্যমে সেই মিঠুন কিন্তু কিছুটা হলেও দলে ফেরার প্রতিদান দিয়েছেন। নিজেদের প্রথম ইনিংসে যখন ৭১ রানে চার উইকেট হারিয়ে হাবুডুবু খাচ্ছিলো অন্ধকারে তখনই আলোর মশাল নিয় বুক চিতিয়ে দাঁড়িয়ে গেছেন মিথুন। রানের বিচারে ৬ রান আসলে কিছুই না তবে টেস্টে ক্রিকেটে যেভাবে খেলতে হয় ঠিক সেভাবেই খেলেছেন মিথুন।

এই ছয় রান করতে মিথুন খেলেছেন ৬১ বল। অংকের হিসাবে দেখা যায় একটি রান করতে তিনি মোকাবেলা করেছেন ১০ বল। বা দশমিকের হিসেব করলে, সেটি হবে ১০দশমিক ১৬ বল। সেই দিক দিয়ে চিন্তা করলে টেস্টে ব্যাটসম্যান হিসেবে আজ মিথুনকে সফল বলাটা খুব বেশি ভুল না হওয়ারই কথা।

তবে তৃতীয় দিনে এই ধারাবাহিকতা নিশ্চয়ই ধরে রাখবেন এই ক্রিকেটার। অন্য দিকে মুশফিকুর রহিমের রান ২৭ তিনিও খেলেছেন ৬১ বল।









Leave a reply