জাতিসংঘের দাপ্তরিক ছয়টি ভাষায় গাওয়া হলো ভাষার গান

|

মালয়েশিয়া প্রতিনিধি:

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও মহান শহীদ দিবসে “ত্যাগের গান” শিরোনামে একটি গান সিনেভিশন এর অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ হয়েছে। বাংলা এবং জাতিসংঘের দাপ্তরিক ছয়টি ভাষায় এ গানটি তৈরি করা হয়।

চলচ্চিত্র পরিচালক জাফর ফিরোজের কথা ও সুরে গানটির সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন প্রতিভাবান সঙ্গীত পরিচালক সজীব দাস। গানটিতে বাংলাদেশ থেকে কণ্ঠ দিয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত বরেণ্য সঙ্গীতশিল্পী ফাহমিদা নবী ও এ সময়ের জনপ্রিয় শিল্পী আরজে রাজু।

আরবি ভাষায় কণ্ঠ দিয়েছেন মরক্কোর শিল্পী আরিফ বেল, চাইনিজ ভাষায় কণ্ঠ দিয়েছেন সিঙ্গাপুরের শিল্পী জুলিয়ান, ইংরেজি ভাষায় কণ্ঠ দিয়েছেন ভেনিজুয়েলার শিল্পী মারকিউস গুনডে, ফ্রেন্স ভাষায় কণ্ঠ দিয়েছেন ফ্রেন্স শিল্পী বেঞ্জামিন, রাশিয়ান ভাষায় কণ্ঠ দিয়েছেন ইউক্রেইন থেকে শিল্পী অলগা জো এবং স্প্যানিশ ভাষায় গেয়েছেন স্পেনের শিল্পী পিসুছকি ও রোমানিয়ান শিল্পী কেইট।

গানটি সম্পর্কে সঙ্গীত পরিচালক সজীব দাস বলেন, বাংলা সহ ৭টি ভাষায় ভাষা শহীদদের নিয়ে এই কাজটি করতে পেরে নিজেকে ভাগ্যবান মনে করছি। এই গানটি দু’টি সংস্করণে ছাড়া হয়েছে। একটিতে ফাহমিদা আপা ও রাজুর কণ্ঠে সম্পূর্ণ গানটি থাকছে এবং দ্বিতীয়টিতে বাংলার পাশাপাশি আরও ছয়টি ভাষা সংযুক্ত হয়েছে। গানের ভিডিও নির্মাণ ও বিভিন্ন দেশের শিল্পীদের সাথে সমন্বয় করেছেন জাফর ফিরোজ।

তিনি বলেন, আমাদের মহান ভাষা ও শহীদ দিবস জাতিসংঘের অধিভুক্ত দেশগুলোতে মর্যাদার সাথে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে পালন করছে। সেই বিষয়টি চিন্তা করেই গানটিকে জাতিসংঘের দাপ্তরিক ছয়টি ভাষায় রেকর্ডের পরিকল্পনা করা হয়। আমাদের উদ্দেশ্য হচ্ছে, ভাষা শহিদদের কথা অন্য ভাষার মানুষেরাও জানতে পারবে এবং বাংলা ভাষার প্রতি সবার একটা ভালোবাসা তৈরি হবে। যে ভালোবাসাটা হবে শ্রদ্ধার এবং গৌরবের।

তিনি আরও বলেন, যখন আমি বিভিন্ন ভাষার শিল্পীদের সামনে ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস তুলে ধরি তখন সবাই অবাক হয়। শুধু ভাষার জন্যই এতগুলো জীবন চলে যেতে পারে এটা তাদের ভাবনারও অতীত। করোনার জন্য অনেক দেশে লক ডাউন চলছে। তাই আমাদেরকে বাধ্য হয়ে শুটিংকে স্টুডিওতেই সীমাবদ্ধ রাখতে হয়েছে।

ফাহমিদা নবী বলেন, ‘ভাষার গান’ শিরোনামের এই গানটি আমাদের ভাষা শহিদদের স্মরণ করিয়ে দেয়। গানটি নিয়ে আমি আশাবাদী। তরুণদের নতুন নতুন চিন্তায় বাংলা গান বাংলা সুর বিশ্বের মাঝে ছড়িয়ে যাবে বলে আমি মনে করি। চমৎকার কথা ও সুরে এবং সজীবের নিখুঁত সঙ্গীত বুননে গানটি সবার হৃদয় ছুঁয়ে যাবে।

শিল্পী আরজে রাজু বলেন, আমার বিশ্বাস এই গানটি আমাদের শহিদ দিবসের জন্য আরও একটি মাত্রা যোগ করবে। গানটি সিনেভিশন এর অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ হয়েছে।









Leave a reply