পঞ্চগড়ে আদালত চত্বরেই বেধড়ক মারধরের শিকার তিন নারী ও প্রতিবন্ধী শিশু

|

পঞ্চগড় প্রতিনিধি:

পঞ্চগড় চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত চত্বরেই মারধরের শিকার হয়েছে এক মামলার বাদি পক্ষের তিন নারী ও এক শিশু। মঙ্গলবার দুপুরে পঞ্চগড় চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত চত্বরে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন পঞ্চগড় সদর উপজেলার টুনিরহাট বানিয়াপাড়া এলাকার মকছেদুর রহমানের স্ত্রী আজিমা খাতুন (২৮), তার প্রতিবন্ধী মেয়ে মারিয়া শেখ (৫), আজিমার মা সকিনা বেগম (৫০) এবং খালা আরজিনা বেগম (৪৫)।

আদালতে তাদের করা এক মামলায় বিবাদি পক্ষের দুই জনের জামিন নামঞ্জুর করে আদালত জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিলে ক্ষুব্ধ হয়ে আদালত চত্বরেই বাদি পক্ষের ওই তিন নারী ও এক শিশুকে মারধর করে আসামি পক্ষের লোকজন।

আদালত চত্বরে আহত অবস্থায় বেশ কিছুক্ষণ সময় পড়ে থাকলেও কেউ তাদের হাসপাতালে নেয়ার উদ্যোগ নেয়নি। পরে আদালত চত্বরে থাকা লোকজনের সহযোগিতায় পুলিশ তাদের উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

আহতরা নারীরা জানান, গত ৪ ফেব্রুয়ারি বাড়ির গাছের ডালপালা কাটাকে কেন্দ্র করে পঞ্চগড় সদর উপজেলার টুনিরহাট বানিয়াপাড়া এলাকার মকছের রহমান ও প্রতিবেশী আজিরত ইসলামের পরিবারের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

এসময় মকছেদুরের পরিবারের বেশ কয়েকজন আহত হন। ১০ ফেব্রুয়ারি মকছেদুর বাদি হয়ে আজিরতসহ ৮ জনের নামে আদালতে মামলা করেন। ওই মামলায় মঙ্গলবার আদালতে আত্মসমর্পণ করে আসামিরা জামিন আবেদন করলে আদালত আজিরত ও রয়েল নামের দুই আসামির জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন এবং বাকি আসামিদের জামিন মঞ্জুর করেন।









Leave a reply