শাকিব-অপুর তালাক এখন সময়ের ব্যাপার

|

অপুর সাথে সংসার না করার সিদ্ধান্তে অনড় আছেন শাকিব খান। শাকিবের এমন সিদ্ধান্ত মেনে নিয়েছেন অপু বিশ্বাসও। তালাকের আবেদন করার পর সমঝোতার দ্বিতীয় তারিখেও আজ আদালতে হাজির হননি দু’জনের কেউই। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, শাকিব-অপুর তালাক কার্যকর হওয়া এখন সময়ের ব্যাপার।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের পারিবারিক আদালত সূত্রে জানা গেছে,  তালাকের আবেদন এলে অব্যবহিত ৯০ দিনের দিনের মধ্যে আদালত তিনবার দুই পক্ষকে ডেকে সমঝোতার চেষ্টা করে। প্রথমবার তারিখ দেয়া হয় ১৫ জানুয়ারি। সেবার শাকিব খান আদালতে উপস্থিত হলেও যাননি অপু বিশ্বাস।

দ্বিতীয়বারের মতো দিন ধার্য করা হয় ১২ ফেব্রুয়ারি। কিন্তু, শাকিব এখন অস্ট্রেলিয়ায়। সেখান থেকেই গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, তিনি অপুর সাথে বৈবাহিক সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে চান না। বিষয়টি নিয়ে তিনি ভাবছেনও না। শাকিব স্পষ্ট করে জানিয়েছেন অপুর সাথে আর কোন আলোচনায় যেতে চান না তিনি।

এই কথার জের ধরে অপু বিশ্বাস বলেছেন, জোর করে সম্পর্ক রাখা যায় না। শাকিব যা ভাল মনে করেছে তাই করেছে।স কলের অধিকার আছে স্বাধীনভাবে সিদ্ধান্ত নেয়ার। তার সিদ্ধান্ত আমি মেনে নিলাম।

১২ ফেব্রুয়ারী আদালতের মধ্যস্ততায় আলোচনা প্রসঙ্গে অপু বিশ্বাস বলেন,  মনে হচ্ছে, গিয়ে আর কোনো লাভ নেই। আমি তো একবার গিয়েছি, তখন তাদের কোনো রেসপন্স পাইনি! আর প্রত্যেকটা মানুষকে কিছু না কিছু আঁকড়ে ধরে বেঁচে থাকতে হয়, আমার এখন একটাই অবলম্বন আব্রাম।

এদিকে, ডিএনসিসি’র অঞ্চল-৩ এর উপসচিব হেমায়েত হোসেন, জানান দুজনের কেউই উপস্থিতি না হওয়ায় ৩য় আরেকটি তারিখ দেয়া হবে। এরপরও কেউ হাজির হয়ে মধ্যস্থতা না করলে যথাসময়ে তালাক কার্যকর হয়ে যাবে।

অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে, সাকিব-অপুর তালাক এখন সময়ের ব্যাপার।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply