দু’বছর পরপর বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনের প্রস্তাব, পক্ষে ১৬৬ ভোট

|

চার বছর নয়, দু’বছর পরপর বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনের প্রস্তাব ফিফা কংগ্রেসে। বিপুল ভোটে পাস হওয়া সেই প্রস্তাব পর্যালোচনা করবে ফিফা। জানিয়েছেন সংস্থাটির সভাপতি জিয়ান্নি ইনফ্যান্তিনো। পাশাপাশি বিতর্কিত সুপার লিগে সমর্থন দেয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ফিফা সভাপতি।

ফুটবল বিশ্বকাপকে বলা হয় গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ। চার বছরের অপেক্ষা শেষে মাঠে গড়ায় বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ এই ক্রীড়া উৎসব।

তবে সেই অপেক্ষা এবার কমছে। চার বছরের পরিবর্তে প্রতি দুই বছর পর পর বিশ্বকাপ আয়োজনের প্রস্তাব সৌদি আরব ফুটবল ফেডারেশনের। ফিফা কংগ্রেসে সেই প্রস্তাবের পক্ষে ভোট পড়েছে ১৬৬টি। বিপক্ষে ভোট মাত্র ২২টি।

একই প্রস্তাব নারী বিশ্বকাপের জন্যও। আর তাতে সমর্থন জানিয়েছেন খোদ ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফ্যান্তিনিও। তবে এ নিয়ে কেবল অধিকতর আলোচনা ও পর্যালোচনা শেষেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা।

ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফ্যান্তিনো বলেন, এটি কেবল আলোচনা ও বিশ্লেষণ পর্যায়ে আছে। আর পর্যালোচনার ফল কী দাঁড়ায় সেটি গুরুত্বপূর্ণ। উন্মুক্ত মানসিকতা নিয়ে ভাবতে হবে আমাদের। শুধু বাণিজ্যিক দিক বিবেচনা করলেই হবে না, ভাবতে হবে এর প্রভাব নিয়েও।

এদিকে বাতিল হয়ে যাওয়া সুপার লিগ নিয়ে শুরু হয়েছে নতুন বিতর্ক।

অভিযোগ উঠেছে, পুরো বিষয়টি আগে থেকেই জানতেন ফিফা সভাপতি। জড়িত ক্লাবগুলোর প্রতিনিধিদের সঙ্গে দেখা করে সমর্থনও জানান তিনি। তবে এমন অভিযোগ অস্বীকার করেন তিনি।

ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফ্যান্তিনো বলেন, আমাদের তথ্য উপাত্তের দিকে খেয়াল করা উচিত, গল্প-গুজবে নয়। সুপার লিগ আলোচিত একটি বিষয় ছিলো। সবাই এ বিষয়ে জানতো। ফিফার দ্বায়িত্ব সংস্থার অংশীদারদের সঙ্গে দেখা করা ও আলোচনা করা।

সুপার লিগ থেকে এরই মধ্যে নাম প্রত্যাহার করেছে নয় ক্লাব। তবে এখনও আঁকড়ে ধরে আছে রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা ও য়্যুভেন্টাস।









Leave a reply