কামড়ানোর প্রতিশোধ নিতে সাপের মাথা চিবিয়ে খেলেন যুবক!

|

রাগের বশে অনেকেই বোধবুদ্ধি খুইয়ে বসেন। কিন্তু সাপ কামড়িয়েছে বলে তার মাথা চিবিয়ে খেতে শোনা যায়নি তেমন কোথাও।

এই রকম একটি ঘটনা ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের হরদোইয়ে।রাগের মাথায় কামড়ানোর প্রতিশোধ নিতে সেই সাপেরই মাথা চিবিয়ে খেলেন সোনেলাল নামে এক যুবক।

সোনেলালের প্রতিবেশিরা জানিয়েছেন, শনিবার সন্ধ্যায় তাকে বেহুঁশ হয়ে পড়ে থাকতে দেখে সঙ্গে সঙ্গে অ্যাম্বুল্যান্স করে সোনেলালকে নিয়ে স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়।

সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা জানান, সোনেলালকে সাপ কামড়েছে। সেই মতো সোনেলালের শারীরিক পরীক্ষা করা হয়। তবে তার দেহে সাপে কাটার কোনও চিহ্ন মেলেনি।

ঘণ্টা তিনেক পর রাত ১০টা নাগাদ হুঁশ ফেরে ওই যুবকের। এরপর সোনেলাল জানান, ওই দিন সন্ধ্যায় গোয়াল ঘরে তিনি গরু-বাছুরদের দেখভাল করছিলেন। সেই সময়ে তাকে একটি সাপ কামড়ায়। আর তাতেই প্রচণ্ড রেগে যান সোনেলাল। এর পরেই সাপটিকে ধরে তার মাথায় কামড়ে দেন তিনি। শুধু তা-ই নয়। এর পর সাপের মাথা ছিঁড়ে তা চিবিয়ে ফেলেন। মুখ থেকে তা ফেলে দেওয়ার পরই বেহুঁশ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।

চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, সোনেলালকে ওষুধ দেওয়া ছাড়াও পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। সোনেলালের দেহে সাপে কাটার কোনও চিহ্ন মেলেনি। সাপটি বিষাক্ত হতে পারে। তাই মাথার অংশ চিবিয়ে খাওয়ার ফলেই বেহুঁশ হয়ে পড়েছিলেন তিনি।

সোনেলালের এই কাণ্ড শোনার পরই তাকে দেখতে হাসপাতালে ভিড় জমে যায়।

স্থানীয় এক ব্যবসায়ী মুকেশ গুপ্ত বলেন, আমি তো বিশ্বাসই করতে পারছি না। কী ভাবে একজন সাপকে কামড়াতে পারে।

উত্তরপ্রদেশের মেন্টাল হেলথ সোসাইটি-র সচিব এসসি তিওয়ারির মতে, এটা কোনও মানুষের স্বাভাবিক আচরণ হতে পারে না। একমাত্র ভয়ানক আগ্রাসী বা মানসিক বিকারগ্রস্ত হলেই এমনটা করতে পারেন কেউ।

তবে প্রতিবেশিদের কার কারও দাবি, সোনেলাল আসলে নেশাগ্রস্ত মানুষ।









Leave a reply