সমাবেশের অনুমতি না পেয়ে শনিবার বিএনপির কালো পতাকা মিছিল

|

দলীয় চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বৃহস্পতিবার রাজধানীতে সমাবেশ করার অনুমতি পায়নি বিএনপি। সমাবেশের অনুমতি না পাওয়ায় শনিবার রাজধানীতে কালো পতাকা মিছিল করার ঘোষণা দিয়েছে দলটি।

বুধবার বিকালে বিএনপির নয়াপল্টনের দলীয় কার্যালয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ কথা জানান।

রিজভী বলেন, ‘সমাবেশের অনুমতি না দেওয়ার প্রতিবাদে আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মহানগরে কালো পতাকা মিছিল করা হবে।’

তিনি বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছিলেন বিএনপির কোনও কর্মসূচিতে বাধা দেওয়া হচ্ছে না। তাহলে আজ কেন সমাবেশের অনুমতি দেননি? সমাবেশের অনুমতি না দেওয়াকে সরকারের গণতন্ত্রবিরোধী আচরণ বলেও আখ্যা দেন তিনি।

রিজভী বলেন, বৃহস্পতিবারের সমাবেশের সব প্রস্তুতি গ্রহণ করেছিলাম। আমাদের একটি প্রতিনিধি দলও পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে দেখা করে অনুমতির জন্য অনুরোধ করেন। কিন্তু অনুমতি দেয়া নিয়ে গড়িমসি করা হচ্ছে। কারণ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের কর্তৃপক্ষ আমাদের বলেছেন, প্রশাসন অনুমতি দিলে তারা মাঠ ব্যবহার করতে দেবে।

সংবাদ সম্মেলনে রিজভী আরও বলেন, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের বিচারক ড. আখতারুজ্জামান তার শিক্ষা এবং পেশার সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। তিনি যে রায় দিয়েছেন সেখানে বিচারকের নিরপেক্ষতা সম্পর্কে আমাদের পূর্বের বক্তব্যগুলো প্রমাণিত হয়েছে। খালেদা জিয়া আদালতে যে বক্তব্য দিয়েছেন, বিচারক সেই বক্তব্য বিকৃত করে রায়ে তা উদ্ধৃত করেছেন।

এর আগে, খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ২২ ফেব্রুয়ারি রাজধানীতে সমাবেশের ডাক দিয়েছিল বিএনপি। সমাবেশের স্থান হিসেবে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান বা দলীয় কার্যালয় নয়াপল্টনকে নির্ধারণ করে এর যেকোনও একটির অনুমতির জন্য ঢাকা মেট্রো পলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কাছে অনুমোদন চাওয়া হয়। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে সমাবেশের অনুমতি পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, গত ৮ ফেব্রুয়ারি বিশেষ জজ আদালত জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় রায় ঘোষণা করেন। রায়ে বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছর এবং সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান, মাগুরার সাবেক সংসদ সদস্য (এমপি) কাজী সালিমুল হক কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগনে মমিনুর রহমানকে ১০ বছর করে কারাদণ্ডাদেশ এবং দুই কোটি ১০ লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়।

রায় ঘোষণার পর থেকে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি আছেন বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া।









Leave a reply