শুরুটা ভালো হলেও মুখ থুবড়ে পড়েছে ‘ব্ল্যাক উইডো’

|

৯ জুলাই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ বেশ কিছু দেশে মুক্তি পায় ব্ল্যাক উইডো। সংগৃহীত ছবি।

শুরুটা দারুণ হয়েছিল বহুল প্রতীক্ষিত হলিউড ছবি ‘ব্ল্যাক উইডো’র। গত সপ্তাহে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ বেশ কিছু দেশে মুক্তি পায় ছবি। তবে শুরুটা ভালো হলেও এখন মুখ থুবড়ে পড়ছে ছবিটি।

‘ব্ল্যাক উইডো’ প্রথম সপ্তাহে দারুণ ব্যবসা করলেও দ্বিতীয় সপ্তাহে ধস নেমেছে বক্স অফিসে। আর এর জন্য ডিজনিকে দায়ী করছেন হল মালিকরা। তাদের অভিযোগ, একই সঙ্গে হল এবং স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মে মুক্তি দেয়ায় ব্যবসা করতে পারছে না সিনেমাটি।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের হল মালিকরা এক বিবৃতি প্রকাশ করে অভিযোগের কথা জানিয়েছেন। তাদের মতে, একই সাথে সিনেমা হল এবং স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মে মুক্তি দেয়ার এই সিদ্ধান্ত ভুল। এতে বক্স অফিসে প্রভাব পড়ে এবং পাইরেসির সম্ভাবনাও বেড়ে যায়।

৯ জুলাই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ বেশ কিছু দেশে মুক্তি পায় ছবিটি। মুক্তির প্রথম সপ্তাহে ভালো ব্যবসা করেছে ‘ব্ল্যাক উইডো’। ২১৮ মিলিয়ন ডলার আয় করে করোনাকালে মুক্তির প্রথম তিন দিনে সর্বোচ্চ আয়ের রেকর্ড গড়েছে এই সিনেমা। কিন্তু দ্বিতীয় সপ্তাহে ছবিটির আয় কমে গিয়েছে ৪১ শতাংশ।

‘ক্যাপ্টেন আমেরিকা: সিভিল ওয়ার’ পরবর্তী কাহিনি নিয়ে আবর্তিত হয়েছে ‘ব্ল্যাক উইডো’। আছে সাবেক রাশিয়ার গুপ্তচরের বেড়ে ওঠার গল্প। এটিকে ‘ইনফিনিটি ওয়ার’ ও ‘এন্ড গেম’-এর প্রিক্যুয়ালও বলা যায়।









Leave a reply