ঈদে যেভাবে খেলে সুস্থ থাকা যাবে

|

ছবি: সংগৃহীত

মাহামারির মধ্যে উদযাপিত হচ্ছে ঈদুল আজহা। ঈদের আনন্দে করোনার কিছুটা প্রভাব তো পড়বেই। তবে অধিকাংশ অফিস আদালত বন্ধ থাকার ফলে বাসায়ই থাকা হবে বেশিরভাগ সময়। আর বাসায় থাকা মানেই খাওয়া দাওয়া! আর কোরবানির ঈদে খাওয়া হবে আরও বেশি। কিন্তু ঈদে খাওয়ার আগে যদি একটু জেনে নেই কী খেলে ঈদে সুস্থ থাকা যাবে, আর কী খেলে তৈরি হতে পারে শারীরিক অস্বস্তি।

ঈদের দিন তৈলাক্ত খাবার, বিরিয়ানি, পোলাও, কাবাব, রেজালা ইত্যাদি খাবার বেশি খাওয়া হয়, তবে ঈদের দিন এসব দিয়ে সকাল শুরু করা উচিত নয়। সকাল শুরু হতে পারে মিষ্টি জাতীয় খাবার যেমন ফিরনি বা সেমাই দিয়ে।

ঈদে খাবার হজম করার জন্য অনেকে অত্যাধিক কোমল পানীয় পান করে থাকেন। কোমল পানীয় বেশি পান করা স্বাস্থ্যের জন্য মোটেই ভালো নয়। এর পরিবর্তে পরিমিত পরিমাণে কোমল পানীয় পান করা যেতে পারে বা লেবুর শরবত বা বোরহানিও স্বাস্থ্যের জন্য অনেক ভালো।

মাংস খাওয়ার পাশাপাশি ফাইবার যুক্ত খাবারও খাওয়া উচিত। তা নাহলে কোষ্ঠকাঠিন্য বেড়ে যাওয়ার ঝুঁকি থাকে। আর এই সমস্যা এড়াতে প্রচুর পানি পান করা উচিত। আলসারে আক্রান্তদের ঝাল এবং তেল, চর্বি ও মসলাযুক্ত খাবার কম খাওয়া উচিত।

তবে যারা অপেক্ষাকৃত তরুণ, তারা নিজের মতে করে সবই খেতে পারেন। প্রেটিন সমৃদ্ধ খাবার করোনার সময়ে তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করবে। পাশাপাশি অ্যান্টি অক্সিডেন্টও এই সময়ে তাদের জন্য খুব উপকারী হতে পারে।









Leave a reply