বরের মাথায় টাক, মণ্ডপেই বিয়ে বাতিল কনের

|

পরে পাত্র রাবি কুমার (ডানে) নেহা কুমারীকে (বামে) বিয়ে করে

এক বছর আগ থেকেই বিয়ের কথা-বার্তা চলছে। ছেলে ডাক্তার। সব কিছু ঠিক দেখে বিয়ের দিনক্ষণও নির্ধারণ করা হয়। বিয়ের আগে প্রাক-বিবাহ প্রথা উভয় পরিবারই পালন করে। বিয়ের আসরে উভয়পক্ষেরই লোকজন পৌঁছে যায়।

বিয়ের আসরে তখন বর ও কনের মালা বদলও হয়ে গিয়েছে। এরপর  সিদুঁরদানের আগে বর তাঁর পাগড়ি খুলতেই ছন্দপতন। বরের মাথায় টাক দেখে বিয়ে করতে বেঁকে বসলেন কনে। উভয়পক্ষের পরিবারের হাজার অনুরোধেও কনে ওই পাত্রকে বিয়ে করতে রাজি হলেন না। গত ১৮ ফেব্রুয়ারি বিহারের সগৌলিতে এই ঘটনা ঘটেছে।

অবশ্য এই ঘটনায় আদৌ ভেঙে পড়েননি বর। বিয়ে ভাঙার দুদিনের মধ্যেই  বিয়ে করলেন বর।









Leave a reply