প্রচ্ছদে স্তন্যদানের ছবি, তুমুল বিতর্ক ভারতে

|

একটি সাময়িকীর প্রচ্ছদ নিয়ে ভারতজুড়ে ব্যাপক তর্ক শুরু হয়েছে। মূলত প্রচ্ছদে একজন মডেলের শিশুকে স্তন্যদানের ছবি নিয়ে পক্ষে বিপক্ষে তুমুল তক্কে মেতেছে ভারত।

ভারতীয় কোনো সাময়িকীর প্রচ্ছদে এই প্রথমবারের মতো কোনো শিশুকে মা স্তন্যপান করাচ্ছেন, এমন ছবি প্রথমবারের মতো প্রকাশ করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সাময়িকীর নাম ‘গৃহলক্ষ্মী’, প্রকাশিত হয় ভারতের সর্ব দক্ষিণ-পশ্চিমের রাজ্য কেরালা থেকে। এর প্রচ্ছদে একটি বাচ্চাকে বুকের দুধ পান করানোর সময় মডেল গিলু জোসেফ একেবারে ক্যামেরায় দিকে তাকিয়ে আছেন।

এর ওপর লেখা ছিল, “মায়েরা বলছেন কেরালার উদ্দেশ্যে; আমরা স্তন্যপান করাতে চাই, তাকিয়ে থাকবেন না।”

সাময়িকীর সম্পাদক মনসি জোসেফ বলেন, “জন সমাগমস্থলে মায়েরা যাতে বাচ্চাদের বুকের দুধ খাওয়াতে পারেন, এ বিষয়ে জনসচেতনতা তৈরি করতে তৈরি করতে চেয়েছিলাম।”

তিনি আরও বলেন, “মাস খানেক আগে এক ব্যক্তি তার স্ত্রীর স্তন্যপান করানোর ছবি ফেসবুকে দিয়ে এ বিষয়টি সামনে নিয়ে আনেন। কিন্তু  ওই ব্যক্তি ও তার স্ত্রীকে সাইবার হয়রানির শিকার হতে হয়। নারী এবং পুরুষ উভয় ধরনের মানুষই তাদের আক্রমণ করে”

এ বিষয়ে আপামর জনসাধারণের মধ্যে সচেতনতা তৈরিতে গৃহলক্ষ্মীর এবারের সংখ্যায় ব্রেস্টফিডিং-কে মূল উপজীব্য করা হয়েছে বলে সম্পাদক মনসি জোসেফ জানান।

‘তর্ক প্রিয় ভারতীয়রা’ এ বিষয়ে কী ধরনের তর্ক-বিতর্কে জড়িয়েছেন?

গৃহলক্ষ্মীর প্রচ্ছদ

বিতর্কের এক পক্ষের যুক্তি হলো মডেল গিলু জোসেফ নিজে এখনো সন্তানের মা হননি। এ কারণে প্রচ্ছদটি ’ ‘রুচিশীল’ পাঠকদের অস্বস্তি এবং ‘অরুচি’ ধরিয়ে জন্ম দিয়েছে বিতর্কের।

ব্লগার অঞ্জনা নায়ার লিখেছেন, ‘ভেতরে শিশুকে আসল মায়ের স্তন্যদানের ছবি ছাপালেও প্রচ্ছদে মডেলের খোলা স্তনে শিশু বাচ্চাকে ধরে রাখার ছবি প্রকাশ করা বিষয়টিকে সস্তা সুড়সুড়ি এবং শোষণ দিকে নিয়ে যাচ্ছে।”

অপরদিকে এ বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই ম্যাগাজিন এবং মডেলের প্রতি সংহতি জানিয়েছেন।

শ্রেয়া নামের একজন লিখেছেন, এটা কারও কাছে অরুচিকর, আবার এটা কারও কাছে বিনে পয়সার প্রদর্শনী হলেও শিশুর জন্য খুবই সহজ সরল এবং প্রয়োজনীয় একটা জিনিস। এটি স্বাভাবিক ব্যাপার। সাময়িকীর এ কাজটি করে ভালো করেছে।

সঞ্জয় মুখার্জি নামের অপর একজন লিখেছেন, খুবই সাহসী একটা কাজ। স্বাভাবিকভাবে শিশুর কল্যাণ এবং বৃদ্ধিতে করণীয় এই বিষয়টিতে এ উদ্যোগ মায়েদের উৎসাহিত করবে।”

সচরাচর বিভিন্ন মাধ্যমে আলোচিত এ বিষয়টিতে স্বয়ং প্রচ্ছদ মডেল গিলু জোসেফ কি বলেছেন?

তিনি বলেছেন, “এ নিয়ে সমালোচনা হবে আমি জানতাম। কিন্তু শিশুদের গর্বের সঙ্গে মায়েরা যাতে স্তন্যপান করাতে পারেন, এ কথাটি ভেবে হাসিমুখেই এটি মেনে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।”

যমুনা অনলাইন: এফএইচ

 









Leave a reply