শাল্লায় অনিয়মের সংবাদ করায় সাংবাদিকের ওপর হামলা

|

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার হাবিপুর ইউনিয়নের আনন্দপুর মাদারিয়া বাঁধের কাজের অনিয়ম দুর্নীতি নিয়ে সংবাদ করায় এক সংবাদকর্মীর উপর হামলা হয়েছে। সোমবার সকালে সিলেট যাওয়ার পথে আনন্দপুরে তার উপর এ হামলা হয়। বিপ্লব রায় নামের এ সাংবাদিক দৈনিক বণিক বার্তার সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শাল্লা উপজেলার হবিপুর ইউনিয়নের আনন্দপুর মাদারিয়া বাঁধের কাজে ব্যাপক অনিয়ম দুর্নীতি হচ্ছে। এলাকাবাসীর এ সব অভিযোগের প্রেক্ষিতে এই বাঁধের কাজ নিয়ে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়। এরই জের ধরে ওই বাঁধ নিমার্ণের প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি (পিআইসির)’র সভাপতি নিতি রঞ্জন রায়, সাধারণ সম্পাদক অমেলুন্দু দাস, সদস্য বিকাশ চক্রবর্তী মনোহর রায় তার উপর ক্ষুব্ধ হয়ে সোমবার সকালে এই হামলা চালায়। ছুরিকাঘাতে ওই সংবাদ কর্মীর হাত কেটে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে শাল্লা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সএ নিয়ে যায়। বর্তমানে সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আহত বিপ্লব রায় জানান, আমি আজ (সোমবার) আমার ব্যক্তিগত কাজে সিলেটে যাচ্ছিলাম। আনন্দপুর গ্রামের কাছে আসার পর আমার পথ আটকে ফেলে। ‘তুরা আমাদের বাঁধের বিরুদ্ধে নিউজ করলি কেন? কাজ আমরা করছি আমরা যে ভাবে ভাল মনে করব সে ভাবেই কাজ হবে। তুই এখানে বলার কে এসব বলে তিন চার জন আমাকে ঝাপটে ধরে এলোপাতারি ভাবে ছুরিকাঘাত করে।’

এ ব্যাপারে প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি (পিআইসির)’র সভাপতি নিতি রঞ্জন রায়ের মোবাইল ফোনে কয়েক বার যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করনেনি।

শাল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলোয়ার হোসেন বলেন, বিপ্লব রায়ের উপর হামলা হয়েছে এই রকম কোন অভিযোগ পাইনি। লিখিত অভিযোগ পেলে আমরা বিষয়টি দেখব।









Leave a reply