কোয়ার্টার ফাইনালে রিয়াল-লিভারপুল

|

টানা ৮ম বারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদ। ফিরতি লেগে নেইমারবিহীন পিএসজিকে ২-১ গোলে হারিয়ে মোট ৫-২ গোলের ব্যবধানে শেষ ১৬ পাড়ি দিয়েছে গ্যালাক্টিকোরা। আর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ৩ বছর পর ঘরের মাঠে  হারের স্বাদ পেলো প্যারিস সেইন্ট জার্মেই।

রিয়াল মাদ্রিদের ১১৬ তম জন্মদিনে প্যারিসের পার্ক ডি প্রিন্সে অনেকটাই নির্ভার ছিলো জিনেদিন জিদান শীর্ষরা। তবে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিতের মিশনে কঠিন সমীকরনে পিএসজির নেই প্রাণভোমরা নেইমার।

ম্যাচের শুরু থেকে রিয়াল মাদ্রিদ অগোছালো থাকলেও সেই ফায়দা নিতে পারেনি ফরাসি জায়ান্টরা। গ্যালাক্টিকোরাও পারতো এগিয়ে যেতে। ১৮ মিনিটে রামোস আর ৩৬ মিনিটে কারিম বেনজামা সুযোগ নষ্ট করলে গোল শুন্য অবস্থায় বিরতিতে যায় দু’দল।

দ্বিতীয়ার্ধে পিএসজি সমর্থকদের রক্তলাল আতশবাজির ধোয়ায় কিছুক্ষণ ম্যাচ বন্ধ থাকলেও থামান যায়নি রোনালদোকে। ৫১ মিনিটে ভাসকোসের ক্রস থেকে হেড করে দলকে লিড এনে দেন সিআর সেভেন। লিগে এটি তার ১১৭ তম গোল।

৬৬ মিনিটে মার্কো ভেরোত্তি দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখলে ১০ জনের দলে পরিণত হয় স্বাগতিকরা। তবে ৭১ মিনিটে এডিনসন কাভানির কল্যাণে সমতায় ফেরে পিএসজি।

দু’মিনিট পরই ক্যাসিমিরোর গোল করলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে গ্যালাক্টিকোরা। দুই লেগ মিলিয়ে ৫-২ গোলের জয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

এদিকে আরেক ম্যাচে পোর্তোর বিপক্ষে গোল শুন্য ড্র করেও কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট পেয়েছে ইংলিশ জায়ান্ট লিভারপুল। অ্যানফিল্ডে ম্যাচের ১৮ মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ ছিল স্বাগতিকদের। ৩৮ মিনিটে আরেকটি সুযোগ নষ্ট করেন দেইয়ার লভরেন। দ্বিতীয়ার্ধেও বল দখলে এগিয়ে ছিল লিভারপুল। তবে ব্যর্থ ছিলেন লিভারপুলের মিসরীয় ফরোয়ার্ড মোহাম্মদ সালাহ। অবশ্য সাদিও মানের হ্যাটট্রিকে প্রথম লেগে ৫-০ গোলের জয়ে অনেকটাই নির্ভার ছিল ইয়্যুর্গেন ক্লপের দল।









Leave a reply