মুসলিম বিদ্বেষী অ্যাকাউন্ট বন্ধ করেছে ফেসবুক

|

ব্রিটেনে সম্প্রতি মুসলিম বিরোধী কর্মকাণ্ড বেশ মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে। মুসলিম বিদ্বেষী বার্তা সম্বলিত লিফলেট বিতরণও করা হয়েছে। পাশাপাশি অনলাইন ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে চালানো হচ্ছে প্রচারণা।

বিবিসি জানিয়েছে, ব্রিটেনের একটি মুসলিম বিরোধী দলের সবগুলো অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

দেশের সংসদে ফেসবুকের এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মে। পাশাপাশি অন্যান্য প্রযুক্তি কোম্পানিগুলোও একই ধরনের সিদ্ধান্ত নেবে বলেও তিনি আশা প্রকাশ করেন।

লন্ডনের মেয়র সাদিক খানও বলেন, ব্রিটেন ফার্স্ট একটি ‘নীচ এবং বিদ্বেষপূর্ণ সংগঠন’।

ফেসবুক বলছে, একাধিকবার ফেসবুক ব্যবহারের নীতিমালা ভঙ্গ করেছে ‘ব্রিটেন ফার্স্ট’ নামের এই দলটি। হুশিয়ারি জানানো সত্ত্বেও দলটি ওই পাতাগুলো অপসারণ করেনি
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটি আরও বলছে, সংগঠনটির ফেসবুক পাতায় বিদ্যমান ছবি ও ভিডিও মুসলমানদের বিরুদ্ধে ঘৃণা ছড়াতে উৎসাহিত করে।

ব্রিটেন ফার্স্ট-এর প্রধান পল গোল্ডিং এবং জেডা ফ্রান্সেনকে চলতি মাসের শুরুতে ধর্মীয়ভাবে জুলুম করার অভিযোগে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। ২০ লাখেরও বেশি মানুষ এই দলের ফেসবুক পেজকে লাইক দিয়েছেন।

ফেসবুকে ব্রিটেন ফার্স্টের কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে সামাজিক মাধ্যম কোম্পানিটির ওপর চাপ বাড়ছিল। কেননা, গত ডিসেম্বরে পল গোল্ডিং এবং জেডা ফ্রান্সেনের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছিল।

ফেসবুকের কর্মকর্তারা বলছে, আমাদের নীতি হচ্ছে ধর্ম, বর্ণ, লিঙ্গ ইত্যাদিকে কেন্দ্র করে কেউ ঘৃণা ছড়া পাতাগুলো সরিয়ে নেওয়া। নামে কিংবা বেনামে  ব্রিটেন ফার্স্ট-এর নেতারা নতুন করে কোন পেজও চালু করতে পারবেন না।

যমুনা অনলাইন: এফএইচ









Leave a reply