খ্যাতির আশায় প্রেমিকের বুকে গুলি, প্রেমিকার জেল

|

ই্উটিউবে বিখ্যাত হতে গিয়ে প্রেমিকার করা গুলি ঠিকই মোটা ডিকশনারি ভেদ করে প্রেমিকের বুকে বিঁধে গিয়েছিল। ডাক্তার ডাকা হলেও ঘটনাস্থলেই মারা গিয়েছিলেন প্রেমিক।

ঘটনাটি যুক্তরাষ্ট্রে মিনেসোটা রাজ্যে ছয় মাসে আগের হলেও এটি আবারও সামনে চলে এসেছে প্রেমিকা পেরেসের কারাদণ্ডে। অনিচ্ছাকৃত খুনের জন্য দেশটির আদালত তাকে ছয় মাসের জেল দিয়েছে।

গণ মাধ্যম বিবিসি জানায়, গত বছরের জুনে তারা পরীক্ষা চালিয়েছিলেন বন্দুকের গুলি ১.৫ ইঞ্চি পুরু ডিকশনারি ভেদ করতে পারে কি না। বুকের সামনে একটি ডিকশনারি ধরে পেড্রো রুইজ তার প্রেমিকা মোনালিসা পেরেসকে ডেজার্ট ঈগল বন্দুক দিয়ে গুলি চালাতে বলেছিলেন। কিন্তু তাদের ধারণাকে ভুল প্রমাণিত করে গুলি ঠিকেই বুকে বিঁধেছিল। গুলি লাগার রুইজ পড়ে গেলে জরুরি ফোনে ডাক্তাররা ডাকা হলেও তাকে বাঁচানো যায়নি। এ কাণ্ডটি ঘটানোর সময় অন্তত ৩০ জন দর্শক উপস্থিত ছিলেন।

ইউটিউবে এ ধরনের একটি ভিডিও ভাইরাল হলে তারা বিখ্যাত হবেন- এই আশায় দুই জনই এমন ভয়ংকর কাণ্ড ঘটানোর পরিকল্পনা করেছিলেন।

মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, রুইজ এবং মিস পেরেস প্রতিদিনই তাদের জীবন যাপনের বিভিন্ন ভিডিও ইউটিউবে পোস্ট করতেন। এতে নানা ধরনের রসিকতা থাকত, যার বেশিরভাগই নির্দোষ মজার কাণ্ড বা প্র্যাঙ্ক।

বিবরণ থেকে আরও জানা যায়, মামলায় প্রমাণিত হয় প্রেমিকই রুইজই চেয়েছিলেন তার বুকে গুলি চালানো হোক। পাশাপাশি পেরেস আদালতে অনিচ্ছাকৃত খুনের জন্য দোষ স্বীকার করেন।

যমুনা অনলাইন: এফএইচ









Leave a reply