সিলেটে আগুনে মা-ছেলেসহ পাঁচজনের মৃত্যু

|

সিলেট ব্যুরো:
সিলেটের গোলাপগঞ্জে বজ্রপাত থেকে সৃষ্ট অগ্নিকাণ্ডে মা-ছেলেসহ পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। রোববার ভোর রাতে উপজেলার লক্ষণাবন্দ এলাকায় লয়লু মিয়ার কলোনিতে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন সেবু বেগম (৩৫), তাহমিদা বেগম (২৫), তার শিশু সন্তান তাহমিদ আহমেদ (৩), সেবুল উদ্দিন (১৭), জিয়া উদ্দিন (১৮)।

পুলিশ জানায়, ভোর রাতে বৃষ্টিপাতের সময় বজ্রপাতে কলোনির বাসার পাশেই থাকা গ্যাস রাইজারে আগুন ধরে যায়। মুহূর্তের মধ্যেই একটি ঘরে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয়রা চেষ্টা করে আগুন নেভানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে দমকল বাহিনীকে খবর দেয়। পরে সিলেট থেকে দমকল বাহীনির দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে দুই ঘণ্টা চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

পরে তিনটি কক্ষ থেকে মা-ছেলেসহ পাঁচজনের মৃত দেহ উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায় দমকল বাহিনী।

এ ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে বাবুল মিয়া নামে একজন ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছে। দায়িত্বরত চিকিৎসকরা জানান, আহত বাবুল মিয়ার শরিরের বেশির ভাগ অংশ পুড়ে গেছে।

স্থানীয়রা জানান, তিন কক্ষের এই বাসাটিতে একটি কক্ষে ভাড়া থাকতেন ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার মোগলাবাজার এলাকার বাবুল মিয়া, তার স্ত্রী তাহমিদা এবং শিশু সন্তান তাহমিদ, অন্য একটি কক্ষে থাকতেন সেবুল উদ্দিন ও জিয়া উদ্দিন, অন্য কক্ষটিতে থাকতেন সেবু বেগম।









Leave a reply