আফরিন দখলে নিয়েছে তুর্কি বাহিনী

|

Turkish forces and Free Syrian Army members hold flags on Mount Barsaya, northeast of Afrin, Syria January 28, 2018. REUTERS/ Khalil Ashawi - RC1CD80C4D00

সিরিয়ার কুর্দি অধ্যুষিত অঞ্চল আফরিনের কেন্দ্রস্থল তুর্কি বাহিনী দখলে নিয়েছে বলে দাবি করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরেদোয়ান।

তিনি বলেন, “আজ সকালে ফ্রি সিরিয়ান আর্মি আফরিনের কেন্দ্রাঞ্চল নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে।”

গণ মাধ্যম বিবিসিতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়। এতে জানানো হয়, আফরিনের নিয়ন্ত্রণ নিতে দুই মাসব্যাপী এই অভিযান পরিচালনা করেছে তুর্কি বাহিনী। এতে নিহত হয়েছে ২৮০ জন বেসামরিক ব্যক্তি, এবং বাস্তুচ্যুত হয়েছে দেড় লাখ লোক।

এক টুইটার বার্তায় তুর্কি বাহিনী বলেছে, আফরিনের সিটি সেন্টার দখলে নিয়েছে তুরস্কের সশস্ত্র বাহিনী ও ফ্রি সিরিয়ান আর্মি (এফএসএ)। ল্যান্ডমাইন বা অন্য কোনো ধরনের বিস্ফোরক কুর্দি গোষ্ঠী পুতে রেখেছে কি না, তা অনুসন্ধান করা হচ্ছে।

তুরস্কের দাবি, তাদের সিরিয়াভিত্তিক পিওয়াইডি এবং এর সশস্ত্র কুর্দি গোষ্ঠী কুর্দিস পিপলস প্রটেকশন ইউনিটসের (ওয়াইপিজি) বিরুদ্ধে। এই দুটি সংগঠন তুরস্কে নিষিদ্ধ ঘোষিত দল পিকেকের শাখা।

ওই দুই সংগঠনকে আইএসবিরোধী যুদ্ধে  কাজে লাগিয়ে ছিল যুক্তরাষ্ট্র। এ নিয়ে ন্যাটোর দুই মিত্র তুরস্ক ও যুক্তরাষ্ট্রর মধ্যে  এ কূটনৈতিক টানাপোড়েন চলছে।

উল্লেখ্য, ওয়াইপিজিকে হটাতে চলতি বছরের জানুয়ারিতে সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ আফরিনে সেনা অভিযান শুরু করেছিল তুরস্ক ও এফএসএ।

 

যমুনা অনলাইন: এফএইচ









Leave a reply