অতিরিক্ত কাজ থামাতে কম্পিউটার বন্ধ

|

নির্ধারিত সময়ের বেশি অফিসে কাজ করতে পারবেন না দক্ষিণ কোরিয়ার নাগরিকরা। এই ব্যাপারে বাধ্য করতে বন্ধ করে দেওয়া হবে কম্পিউটার।

দেশটির সরকার রাজধানী সউলে এ উদ্যোগ কার্যকর করতে যাচ্ছে।

বিশ্বের যে ক’টি দেশের দীর্ঘ কর্মঘণ্টা রয়েছে তাদের মধ্যে দক্ষিণ কোরিয়া অন্যতম। সরকারি কর্মীরা বছরে দুই হাজার ৭৩৯ ঘণ্টা কাজ করে থাকেন। উন্নত দেশে এর পরিমাণ প্রায় হাজার ঘণ্টা।

দেশটির সরকার বলছে, “তারা অতিরিক্ত কর্মঘন্টার সংস্কৃতি বন্ধ করতে চান।”

সউল নগর সরকার (এসএমজি) তিন দফায় এই উদ্যোগ বাস্তবায়ন করবে। প্রথম দফা শুরু হবে আগামী ৩০ মার্চ। ওই দিন স্থানীয় সময় রাত আটটায় সউলের অফিসগুলোর কম্পিউটারে বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে দেওয়া হবে।

দ্বিতীয় দফায় মাসের দ্বিতীয় ও চতুর্থ শুক্রবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় সংযোগ বন্ধ করে দেওয়া হবে, এবং তৃতীয় দফায় মে মাস থেকে পুরোদমে প্রতি শুক্রবার সন্ধ্যা সাতটায় সংযোগ বন্ধ করে দেওয়া হবে।

এসএমজি-এর দেওয়া এক বিবৃতি অনুসারে, কিছু বিশেষ অবস্থা ব্যতীত সকল কর্মী কাজ বন্ধ করতে হবে।

তবে, ৬৭ দশমিক ১০ শতাংশ সরকারি কর্মী তাদেরকে এই উদ্যোগের বাইরে রাখার জন্য বলেছে।

চলতি মাসের শুরুতে দক্ষিণ কোরিয়ার সংসদ সর্বোচ্চ সাপ্তাহিক কাজের সময় ৬৮ থেকে ৫২ ঘণ্টায় নামিয়ে আনতে একটি আইন পাস করে।

যমুনা অনলাইন: এফএইচ









Leave a reply