ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, কলম্বিয়ার জয়, জার্মানির ড্র

|

বিশ্বকাপের আগে নিজেদের ঝালিয়ে নিতে শুরু করেছে শিরোপার বড় দাবিদাররা। যেখানে রাশিয়াকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে ব্রাজিল। ইটালির বিপক্ষে মেসিহীন আর্জেন্টিনার জয় ২-০ গোলে। ফ্রান্সের বিপক্ষে ২ গোলে পিছিয়ে থেকে জয় পেয়েছে কলম্বিয়া। আর ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর শেষ মুহুর্তের জাদুতে মিশরকে হারিয়েছে পর্তুগাল। তবে দিনের হাইভোল্টেজ ম্যাচে ১-১ গোলে ড্র করেছে জার্মানি আর স্পেন।

স্বাগতিকদের বিপক্ষে সেলেসাওদের সাথে মাঠে ছিলেন না নেইমার। প্রথমার্ধটা তাই গোলশূন্যভাবে পার করতে তেমন বেগ পেতে হয়নি রাশানদের। তবে দ্বিতীয়ার্ধে নিজেদের মোড়ক ছেড়ে বেড়িয়ে আসে ৫ বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। ৫৩ মিনিটে গোলরক্ষকের হাত ফসকে বেরিয়ে যাওয়া বলে টোকা দিয়ে দলকে এগিয়ে নেন মিরান্ডা। এরপর ৬১ মিনিটে রাশিয়ার রক্ষণভাগের খেলোয়াড়ের ভুলে স্পট কিক থেকে লিড দ্বিগুন করেন কুটিনিয়ো। আর ম্যাচের ৬৬ মিনিটে পাউলিনিয়োর গোলে ৩-০’র জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে তিতের শিষ্যরা।

ম্যানচেস্টারে মেসিকে বিশ্রামে রেখেই দল মাঠে নামান হোর্হে সাম্পাওয়ালি। প্রথমার্ধে দুই দল আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে থাকলেও আলবিসেলেস্তাদের একাধিক আক্রমণ আটকে দেন ইটালির বর্ষীয়ান গোলরক্ষক বুফন। তবে ম্যাচের ৭৫ মিনিটে ডেডলক ভাঙ্গেন বানেগা। ডি বক্সের বাইরে থেকে তার শটে বোকা হন বুফন।

মিনিট দশেক পর লানজিনির গোলে দর্শকদের সাথে আনন্দে ভাসেন গ্যালারীতে বসে ম্যাচ উপভোগ করা লিওনেল মেসিও।

জুরিখে মিশরের সাথে ম্যাচে পর্তুগীজদের দাপট থাকলেও ৫৬ মিনিটে মোহাম্মদ সালাহ’র গোলে লিড নেয় মিশর। তবে হাল ছাড়েননি রোনালদো। অতিরিক্ত সময়ে তার হেডে করা দুই গোলে হতবাক হতে হয় প্রতিপক্ষকে। শেষ পর্যন্ত ২-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে পর্তুগাল।

তবে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছে ফ্রান্স আর কলম্বিয়ার মধ্যে। প্যারিসে ১১ মিনিটে অলিভার জিরুর গোলের পর ২৬ মিনিটে লেমারের গোলে ২-০ তে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা।

তবে মিনিট দুয়েকের ব্যবধানে স্কোর লাইন ২-১ করেন মুরিয়েল। দ্বিতীয়ার্ধের ৬২ মিনিটে রদ্রিগেজের বাড়ানো বলে ফালকাও দলকে সমতায় ফেরানোর পর জমে ওঠে ম্যাচ। আর ৮৫ মিনিটে ফরাসি রক্ষণের ভুলে স্পট কিক থেকে কলম্বিয়ার ৩-২ এর জয় নিশ্চিত করেন কুইন্টেরো।

জার্মানির মাঠে স্বাগতিকদের শুরুতেই ধাক্কা দেয় স্প্যানিশরা। ম্যাচের ষষ্ঠ মিনিটেই ইনিয়েস্তার কাছ থেকে পাওয়া বলে স্কোর শিটে নাম তোলেন রদ্রিগো। তবে ৩৫ মিনিটে থমাস মুলারের দারুণ এক গোলে ম্যাচে সমতা ফেরায় জার্মানি।

আর নেদারল্যান্ডের মাঠ আমস্টাডামে লিঙ্গার্ডের একমাত্র গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ইংলিশরা।









Leave a reply