ফোনকল আর এসএমএসেরও সব তথ্য রাখে ফেসবুক!

|

ক্যামব্রিজ অ্যানালিটিকার স্ক্যান্ডাল প্রকাশ হবার থেকে চরম আস্থার সংকটে ফেসবুক। ব্যক্তিগত নিরাপত্তার ঝুঁকির কারণে অনেকেই ছেড়ে যাচ্ছেন বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটিকে। ডিলিট ফেসবুক নামের মুভমেন্টও শুরু হয়েছে সাইবার জগতে। এই ডিলিট করতে গিয়েই ফেসবুক ব্যবহারকারীরা আবিস্কার করেছেন নতুন চমকে দেয়া তথ্য। ফেসবুক তাদের ফোন কল আর এসএমএসের সব তথ্য সংগ্রহ করে রাখে!

ডাইলান ম্যাককে নামের এক ফেসবুক ব্যবহারকারি রোববার অভিযোগ করেছেন, ২০১৬ সালের অক্টোবর থেকে ২০১৭ সালের জুলাই পর্যন্ত তার মোবাইল ফোনের প্রতিটি কল, প্রতিটি মেসেজের তথ্য রেখে দিয়েছে ফেসবুক। অনেকে জানিয়েছেন, ফোনের সব কনট্যাক্ট, ক্যালেন্ডারে সব ইভেন্ট এমনকি বন্ধুদের জন্মদিনের তথ্য পর্যন্ত ফেসবুক সংরক্ষণ করে রেখেছে।

অ্যকাউন্ট মুছে ফেলার পরিবর্তে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ সবসময় নিস্ক্রীয় বা ডিঅ্যাকটিভেট করাকে উৎসাহিত করে, যাতে ব্যবহারকারীর সব তথ্য সার্ভারে থেকে যায়। এরপরও যখন কেউ স্থায়ী ফেসবুক অ্যাকাউন্ট মুছে ফেলতে চায়, তখন সাইট থেকে বলা হয়, চাইলে আপনার সব তথ্য ডাউনলোড করে রাখতে পারেন।

এই ডাউনলোড করা তথ্যভান্ডারের মধ্যে ব্যবহারকারীরা আবিস্কার করেছেন তাদের সমস্ত ফোনকল আর মেসেজের তথ্য। ম্যাট জনসন নামে একজন জানান, তার মুছে ফেলা প্রোফাইলের ডাউনলোড করা তথ্যভান্ডার থেকে গত এক বছরের সব কল ও মেসেজের বিবরণ পেয়েছেন। এমা কেনেডি খুজে পেয়েছেন, তার সমস্ত কনট্যাক্ট নাম্বার।

বিষয়টি অবশ্য অস্বীকার করেনি ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। সোশ্যাল মিডিয়া সাইটটির এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, যখন আপনি প্রথমবার মেসেঞ্জার ও ফেসবুকে অ্যাপ ব্যবহার করেন, তখনই ফোনের সব কনট্যাক্ট আপলোড করা হয়ে থাকে। তবে বিষয়টা ঐচ্ছিক। ব্যবহারকারীর সম্মতি নিয়ে তথ্যগুলো সংগ্রহ করা হয়। মেসেঞ্জারেও চাওয়া হয় ফোন নম্বার। সম্মতি পেলেই মেসেঞ্জার ফোন কল ও এসএমএসের তথ্য সংগ্রহ করা শুরু করে।









Leave a reply