চার ধর্ষককে সড়কে হাঁটালো পুলিশ, জুতাপেটা করলেন নারীরা

|

আদালত তাদের কী শাস্তি দেবে সেটা সময় এলেই জানা যাবে, কিন্তু পুলিশ যেটা করল সেটা এক কথায় অভিনব। ধর্ষণে অভিযুক্তদের রাস্তা দিয়ে হাঁটানো হল। এসময় আশপাশ দিয়ে হেঁটে যাওয়া নারীরা জুতাপেটা করলেন ধর্ষকদের।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মধ্যেপ্রদেশের রাজধানী ভোপালে। গতকাল রোববারের ওই ঘটনার ভিডিও প্রকাশ করেছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

সকালে ভোপালের মহারানা প্রতাপ নগর থানায় ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেন কুড়ি বছরের এক তরুণী। শনিবার সন্ধ্যায় তাঁকে ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ। মূল অভিযুক্ত হিসেবে তারই কলেজের সিনিয়র শৈলেন্দ্র দাঙ্গির নাম এফআইআরে লেখেন নির্যাতিতা। সেই সঙ্গে আরও তিন জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়েক করেন।

ধর্ষণের পরে তাকে মুখ বন্ধ রাখতে বলে অপরাধীরা, অন্যথা চরম পরিণতির হুমিকও দেওয়া হয়। কিন্তু নির্যাতিতা দমে না গিয়ে থানায় অভিযোগ করেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই ওই চার জনকে আটক করে পুলিশ। সেই সঙ্গে পন্থা নেওয়া হয় অভিনব শাস্তির।

জনসমক্ষে লজ্জা দেওয়ার জন্য তাদের রাস্তা দিয়ে হাঁটানো হয়। ওই সময়ে রাস্তায় থাকা মহিলারা ওই অভিযুক্তদের কিল-চড়-ঘুষি-লাথি মারতে থাকেন। জুতোপেটাও করেন অনেকে। জনতার মাঝে তাদের কান ধরে ওঠবোস করানো হয়।

অভিযুক্তদের এ রকম শাস্তি দেওয়ার পেছনে ঠিক কী চিন্তা কাজ করেছিল, এই প্রশ্ন করা হলে, ভোপাল পুলিশের আইজি জয়দীপ কুমার বলেন, মহিলাদের আত্মবিশ্বাসী করানোই ছিল মূল লক্ষ্য। তিনি বলেন, “মহিলারা যাতে ভয় না পেয়ে নির্যাতনের অভিযোগ পুলিশের কাছে জানাতে আসেন, সেটাই ছিল মূল উদ্দেশ্য।” এর ফলে অভিযুক্তদের মধ্যেও ভীতি ঢুকবে বলে জানান তিনি।









Leave a reply