ক্লান্ত হিন্দুদের শরবত পান করালেন মুসলিমরা

|

রাম নবমীকে ঘিরে ভারতের কলকাতায় চলছে অস্ত্রের ঝনঝনানি। ক্ষমতাসীন দল বিজেপির সমর্থকরা এরই মধ্যে পুলিশে সাথে সংঘর্ষে জড়িয়েছে। এ ঘটনায় ৩ জন নিহতের খবরও শোনা গেছে। রাজ্যজুড়ে সাম্প্রদায়িকতার বাতাস যেন ভেসে বেড়াচ্ছে। নানা আশঙ্কা বিরাজ করছে সেখানে। এর মাঝেই সম্পূর্ণ ব্যতিক্রমী দৃষ্টান্ত তুলে ধরেছেন খিদিরপুরে হিন্দু-মুসলিমরা।

রাম নবমীতে হিন্দু মিছিলকারীদের হাতে শরবত তুলে দিলেন মুসলিমরা। মুহূর্তেই যেন ফিকে হয়ে গেল হিন্দু-মুসলিম দ্বন্দ্বের খণ্ডচিত্র। রোববার রাম নবমির মিছিল শেষে খিদিরপুরে এমন দৃশ্যই দেখা যায়। গেরুয়া নিশান নিয়ে যারা বেরি হয়েছিলেন তাদের ঘাম মুছে দিয়েছেন মুসলমানরা। মিছিলে অংশগ্রহণকারীদের হাতে তুলে দেন শরবতের গ্লাস। মিছিলকারীরাও খুশি। বলছেন, এমন সহাবস্থানই ভারতের ঐতিহ্য।

মুসলমানরাও বলছেন, ঈদ, মহররমে ওরা সবাই আমাদের পাশে থাকেন। এই এলাকাই সব ধর্মের মানুষের বাস। হিন্দু, মুসলমান, শিখ, খ্রিস্টান সবাই আছেন এখানে। সবাই এক সাথেই বড় হয়েছি।

এই উদ্যোগের নেপথ্যে রয়েছেন তৃণমূল নেতা ও চেতলা অগ্রণী পূজা কমিটির কর্মকর্তা ইয়াসির হায়দার। নিজেই জানাচ্ছেন, ধর্ম মানুষের মধ্যে বিভেদ তৈরি করতে পারে না। এখন কেউ কেউ মানুষে মানুষে ধর্মের নামে বিভেদ তৈরি করতে চাইলেও বাংলার মানুষই সেই তা হতে দেবেন না।

রাজ্যের নগর উন্নয়ন মন্ত্রীও বলেছেন একই কথা, রাম নবমী কারও একার উৎসব হতে পারে না। বিজেপি এখন ধর্ম বেচে খাচ্ছে। বাংলার মানুষ স্বামী বিবেকানন্দ, শ্রী রামকৃষ্ণ ও শ্রীচৈতন্যকে চেনেন। ধর্মের নামে রাজনীতি করছে বিজেপি। এর প্রতিবাদ করবেন মানুষই।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply