সংশোধিত মুচলেকা জমার নির্দেশ বিজিএমইএ’কে

|

হাতিরঝিলে ভবন ভাঙার বিষয়ে আদালতে দেয়া বিজিএমইএ’র মুচলেকায় অস্পষ্টতা থাকায় তা পরিমার্জন করে সোমবারের মধ্যে দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন আপিল বিভাগ। সেদিন বিজিএমইএ’র করা সময় আবেদনের ওপর আদেশ দেবেন সর্বোচ্চ আদালত।

বুধবার সকালে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন। এর আগে শেষবারের মতো এক বছরের সময় চেয়ে লিখিত মুচলেকা দেন বিজিএমইএ’র বর্তমান পরিচালনা পরিষদ। লিখিত মুচলেকায় বলা হয়, এর পর আমরা আর সময় চাইব না।

আদালতে বিজিএমইএর পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী কামরুল হক সিদ্দিকী। রিটের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মঞ্জিল মোরসেদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

এর আগে, মঙ্গলবার হাতিরঝিলে ভবন ভাঙতে বার বার সময় চাওয়ায় বিজিএমইকে তীব্র ভর্ৎসনা করেছেন সর্বোচ্চ আদালত। মুচলেকা দিলেই আরও এক বছর সময় চাওয়ার আবেদনের বিষয়ে আদেশ দেবেন বলে জানান আপিল বিভাগ।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালের ৩ এপ্রিল বিজিএমইএ ভবনকে ‘হাতিরঝিল প্রকল্পের মাঝে ক্যান্সার’ করে হাইকোর্টের রায়ে সেটি ভাঙার নির্দেশ দেয়া হয়। সর্বোচ্চ আদালতে করা বিজিএমইএ’র রিভিউ ২০১৭ সালের ৫ মার্চ আপিল বিভাগ খারিজ করে দেন। এরপর থেকে দফায় দফায় আপিল করে ভবন ভাঙতে সময় নিয়েছে বিজিএমইএ।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply