প্রকাশ্য দিবালোকে পাসপোর্ট কর্মকর্তাকে কুপিয়ে জখম

|

বগুড়ার আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক সাজাহান কবিরকে কুপিয়েছে সন্ত্রাসীরা। বৃহস্পতিবার দুপুরে শহরের কৈগাড়ী এলাকায় একদল সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর জখম করে তাকে। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে এয়ার-অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় আনা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, দুপুর দেড়টার দিকে ব্যক্তিগত প্রয়োজনে সাজাহান কবির পাসপোর্ট অফিস থেকে বেরিয়ে রিকশাযোগে শহরের ফুলতলা এলাকার দিকে যাচ্ছিলেন। কৈগাড়ী বন ভবনের সামনে পৌঁছালে ৫/৬ জন সন্ত্রাসী তাকে বহনকারী রিকশার গতিরোধ করে তার ওপর হামলা চালায়। প্রাণ বাঁচাতে তিনি বন কর্মকর্তার কার্যালয়ে ঢুকে পড়লে সন্ত্রাসীরা সেখানে ঢুকে তাকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা সাজাহান কবিরকে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. নির্মেলন্দু চৌধুরী জানান, তার মাথা, ডান হাত ও ডান পায়ে অসংখ্য কোপের চিহ্ন রয়েছে। তার অবস্থা গুরুতর। তাই উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

ঘটনার পরপরই জেলা প্রশাসক নূরে আলম সিদ্দিকী ও পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞাসহ প্রশাসনের শীর্ষ কর্তারা হাসপাতালে ছুটে যান। পুলিশ সুপার জানান, ঘটনার সঙ্গে যারা যুক্ত ছিলো তাদের চিহ্নিত করে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এরইমধ্যে গোয়েন্দা পুলিশের ৩টি টিমসহ পুলিশের বেশ কটি টিম মাঠে কাজ শুরু করেছে।

পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তারা জানান, দু’দিন আগে স্থানীয় যুবলীগের একজন নেতা পাসপোর্টের তদবিরের জন্য এসেছিলেন সাজাহান কবিরের কাছে। কিন্তু বৈধ কাগজপত্র না থাকায় তিনি রাজি হননি। তাদের ধারণা, এর জেরেই হতে পারে এমন হামলার ঘটনা।

যমুনা অনলাইন: এমএস/টিএফ









Leave a reply