বিস্ফোরণে দগ্ধ চার কুয়েট শিক্ষার্থীই না ফেরার দেশে

|

ময়মনসিংহের ভালুকায় বিস্ফোরণে দগ্ধ চার কুয়েট শিক্ষার্থীই চলে গেছেন না ফেরার দেশে। গুরুতর আহতদের মধ্যে দীপ্ত সরকার শুক্রবার সকালে আর হাফিজুর রহমান মারা যান বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে।

এর আগে বুধবার রাতে ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান শাহীন মিয়া।

গত শনিবার রাতে ভালুকার মাস্টারবাড়ি এলাকায় একটি ছয়তলা ভবনের তৃতীয় তলার ফ্ল্যাটে প্রচণ্ড বিস্ফোরণ ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হন তৌহিদুল ইসলাম।

কুয়েটের বস্ত্র প্রকৌশল বিভাগ থেকে শিক্ষাজীবন শেষে ভালুকার স্কয়ার ফ্যাশন লিমিটেডে শিক্ষানবিশ প্রকৌশলী হিসেবে যোগ দেন এই চার শিক্ষার্থী। কারখানার পাশে মাস্টারবাড়ি এলাকায় ওই বাসায় ভাড়া নেয় তারা।

পুলিশ জানায়, বাড়িটির মালিক অবৈধভাবে গ্যাস-সংযোগ নিয়েছিলেন। সেই সংযোগের ফুটো থেকে গ্যাস ছড়িয়ে বিস্ফোরণ ঘটেছে। ভবনমালিকের অবহেলায় হতাহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে উল্লেখ করে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করেছে ভালুকা থানার পুলিশ।

যমুনা অনলাইন: আরএম









Leave a reply