শাশুড়ি হত্যা মামলায় পুত্রবধূর ৭ বছর-প্রতিবেশির যাবজ্জীবন

|

স্টাফ রিপোর্টার, নাটোর

নাটোরের বড়াইগ্রামের আঙ্গুরি আবেদীন হত্যা মামলায় প্রতিবেশিসহ ৬ জনের যাবজ্জীবন ও পুত্রবধূ বিউটি আক্তারকে ৭ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত। মঙ্গলবার বিকেলে নাটোরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান এই দণ্ডাদেশ প্রদান করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, উপজেলার দিয়ারপাড়া গ্রামের চান মোল্লার ছেলে শামিম হোসেন, আব্দুর রহিমের ছেলে মিল্টন, আব্দুর রশিদের ছেলে সেলিম উদ্দিন, আকছেদ মোল্লার ছেলে আব্দুস সামাদ, মৃত নূরুল ইসলামের ছেলে শফিকুল ইসলাম ও সিরাজুল ইসলামের ছেলে আশরাফুল ইসলাম এবং ৭ বছরের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত পূত্রবধূ বিউটি আক্তার কামরুল ইসলামের মেয়ে।

নাটোর জজ কোর্টের পিপি এ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম জানান, ২০১২ সালের ৫ নভেম্বর বড়াইগ্রামের দিয়ারপাড়ার আঙ্গুরি আবেদীনকে তার পুত্রবধূ বিউটি আক্তারের সহায়তায় অপহরণ ও পরে হত্যা করা হয়। এ ঘটনার নিহতের ছেলে সাইফুল ইসলাম বাদী হয়ে বড়াইগ্রাম আদালতে একটি অপহরণ ও হত্যা মামলা দায়ের করে। পুলিশ মামলার তদন্ত শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট দাখিল করে। মামলার দীর্ঘ শুনানি ও সাক্ষ্য প্রমাণ গ্রহণ শেষে ঘটনার সত্যতা সন্দেহাতীত ভাবে প্রমাণিত হওয়ার প্রতিবেশিসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে যাবজ্জীবন ও পুত্রবধূ বিউটি আক্তারকে ৭ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেয়া হয়।









Leave a reply