বেতন কম তাই ৪০০ কেজি চিঠি জমিয়ে রেখেছিলেন ডাকপিয়ন!

|

বেতন অনেক কম, নুন আনতে পানতে ফুরায়। সেজন্যই অভিমান করে ৩ বছর ধরে কোনো চিঠি-পার্সেল সরবরাহ করেননি এক ডাকপিয়ন। তার কাছে জমা হওয়া প্রায় ৪০০ কেজি ওজনের চিঠি-পার্সেল উদ্ধার করেছে পুলিশ! এ ঘটনা ঘটেছে ইতালির তুরিন শহরে। সূত্র: দ্যা গার্ডিয়ান।

পুলিশ বলছে, নিয়মিত টহল দিতে গিয়ে তারা ছুরিসহ এক ব্যক্তিকে আটক করে। তার গাড়ির পেছনে পাওয়া যায় ৭০টি চিঠি। জিজ্ঞাসাবাদে ওই ব্যক্তি জানায় তিনি ডাকবিভাগে কাজ করতেন। পরে ওই ব্যক্তির বাসায় গিয়ে তারা ৪০ বাক্স ভর্তি চিঠি-পার্সেল উদ্ধার করে যার আনুমানিক ওজন ৪০০ কেজি। এর মধ্যে ছিল ফোন-ইলেকট্রিকের বিল, ব্যাংককের কাগজপত্রের মতো গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট।

দায়িত্বে অবহেলা ও চৌর্যবৃত্তির অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কেন এমন কাণ্ড ঘটালেন এই ব্যক্তি? ৩৩ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি পুলিশকে জানান, ডাকবিভাগে তাকে যে বেতন-ভাতা দেয়া হতো তা অনেক কম। তাই ক্ষোভ থেকেই গত ৩ বছর ধরে তিনি কোনো ডাক-সরবরাহ করেননি। ২০১৭ সালে তিনি চাকুরি থেকে অবসর নেন।

ইতালির ডাকবিভাগের অব্যবস্থাপনা নিয়ে অভিযোগ অনেক পুরনো। এর আগেও ২০১০ সালে পুলিশ ৫০০ কেজি চিঠি-পার্সেলসহ ৫৬ বছর বয়সী এক ডাকপিয়নকে আটক করে। ২০১৩ সালে ৪০০ কেজি অসরবরাহকৃত মালামালসহ আরেক ডাকপিয়নকে আটক করে পুলিশ। দেশটির আইনে এহেন অপরাধে এক বছরের কারাদণ্ডের বিধান আছে।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply