দাগনভূঞায় সন্ত্রাসীর গুলিতে গৃহবধূ নিহত

|

ফেনী প্রতিনিধি

ফেনীর দাগনভূঞায় শারমিন আক্তার নামের এক গৃহবধূকে গুলি করে হত্যা করেছে জাহাঙ্গীর আলম নামের এক সন্ত্রাসী। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার নয়নপুর গ্রামের আদু ভূঞা বাড়িতে। গত ৮ মাস পূর্বে শারমিনের বিয়ে হয়। তার স্বামীর বাড়ি নোয়াখালীর সেনবাগের চৌমুনশীর দরগাহ বাড়ি। কিছুদিন আগে শারমিন পিতার বাড়িতে বেড়াতে আসে।

দাগনভূঞা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কালাম আজাদ নিহতের মা আলেয়া আক্তারের বরাত দিয়ে জানান, দাগনভূঞা উপজেলার পূর্বচন্দ্রপুর ইউনিয়নের নয়নপুর গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম ঘটনার দিন বিকেলে সামছুল হকের স্ত্রী শারমিন আক্তারের সাথে একই রুমে বসে গল্প করছিলেন। এমতবস্থায় জাহাঙ্গীর তার অবৈধ অস্ত্রটি নাড়াচাড়া করলে অসাবধানতাবশত গুলি লাগে শারমিনের গায়ে। এতে শারমিনের মৃত্যু হয়। স্থানীয় এলাকাবাসী সন্ত্রাসী জাহাঙ্গীরকে ধরার চেষ্টা করলে অস্ত্র উঁচিয়ে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ফেনী সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

ওসি আরো জানান, জাহাঙ্গীরের সাথে প্রেমের কিংবা পূর্ব শত্রুতা ছিলনা। অসাবধনতাবশত গুলিতে নিহত হয়েছে।
জাহাঙ্গীর ও শারমিন সম্পর্কে চাচাতো-জেঠাতো ভাই-বোন। শারমিন আক্তার বাবার বাড়িতে বেড়াতে আসলে হত্যাকান্ডের শিকার হন।









Leave a reply