সোনমের ফোনে মান ভেঙে বিয়েতে ঐশ্বরিয়া!

|

বেশ ক’দিন ধরেই ঠাণ্ডা লড়াই চলছিল সোনম কাপুর আর ঐশ্বরিয়া রায়ের মধ্যে। কান ফেস্টিভালে সোনমের মন্তব্যকে ঘিরে দু’জনের মধ্যে দূরত্ব সৃষ্টি হয়। অবশ্য, সোনম যতই ঐশ্বরিয়াকে নিয়ে মন্তব্য করুন না কেন, ঐশ্বরিয়া কিন্তু চুপই ছিলেন। অযথা কোনও বিষয় নিয়ে মুখ খোলেননি তিনি। অবশেষে সোনমের বিয়েতে সেই ঠাণ্ডা যুদ্ধের অবসান ঘটতে যাচ্ছে? ঐশ্বরিয়াকে নিজে ফোন করে বিয়েতে আমন্ত্রণ জানান অনিল কন্যা।

ঘটনার সূত্রপাত বেশ কয়েক বছর আগে। কান ফেস্টিভ্যালে ঐশ্বরিয়া এবং সোনম দু’জনেই একটি বিজ্ঞাপনী সংস্থার মুখ হয়ে রেড কার্পেটে হাজির হন। পাপারাজ্জির মুখোমুখি হয়ে ওই সময় ঐশ্বরিয়াকে ‘আন্টি’ বলে সম্বোধন করেন সোনম কাপুর।

সোনমের ওই মন্তব্যের পরই হইচই শুরু হয়ে যায় বলিউডে। যদিও, বচ্চন পরিবারের বউ কিন্তু মুখে টু শব্দ করেননি। এরপর রীতিমতো ড্যামেজ কন্ট্রোলে নামতে হয় সোনমকে। কানের রেড কার্পেটে বেগুনি রঙে ঠোঁট রাঙিয়ে যখন হাজির হন রায়, ওই সময়ও তাকে নিয়ে জোর সমালোচনা শুরু হয়। আর ওই সময় ঐশ্বরিয়ার পাশে দাঁড়ান সোনম। প্রত্যক্ষভাবে না হলেও, সংবাদমাধ্যমের সামনে সোনম বলেন, বেগুনি রঙের লিপস্টিকে বেশ ভাল মানিয়েছে রায়কে। কিন্তু, সোনম যাই বলুন না কেন, ঐশ্বরিয়া তা কানে তোলেননি। সেই থেকেই দু’জনের সম্পর্কে মেঘ জমতে শুরু করে।

এরপর কেটে গেছে বেশ কয়েক বছর। সম্প্রতি ডিজাইনার সন্দীপ খোসলার ভাইজির বিয়েতে হাজির হয়ে অনিল কাপুর এবং সুনিতা কাপুর একত্রে গিয়ে ঐশ্বরিয়ার সাথে কথা বলেন। মেয়ের বিয়ের নিমন্ত্রণ করেন। তাতেও হয়তো মেঘ কাটেনি পুরোপুরি। অবশেষে, বিয়ের কয়েক দিন আগে সোনাম নিজে ঐশ্বরিয়াকে ফোন করেন এবং আমন্ত্রণ জানান। জি নিউজ জানাচ্ছে, ঐশ্বরিয়াও নাকি সব রাগ, ক্ষোভ ভুলে সোনমের বিয়েতে হাজির হবেন বলে কথা দিয়েছেন।

যমুনা অনলাইন: এটি









Leave a reply