ইরানের পরমাণু চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা ট্রাম্পের

|

ইরানের সাথে হওয়া ঐতিহাসিক পরমাণু চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিলো যুক্তরাষ্ট্র। বুধবার ইরান-ছয় বিশ্বশক্তি পরমাণু চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার এই ঘোষণা দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

হোয়াইট হাউজে দেয়া এক ভাষণে তিনি বলেন, এই চুক্তির মাধ্যমে ইরানকে পরমাণু অস্ত্র তৈরির সুযোগ করে দেয়া হয়েছে। এই সুযোগ রুখতেই দেশটির সাথে করা চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। ভাষণে মধ্যপ্রাচ্যকে অস্থিতিশীল করার জন্য ইরানকে এককভাবে দায়ী করেন ট্রাম্প।

তিনি বলেন, হিজবুল্লাহ-হামাসের মতন সশস্ত্র গোষ্ঠীকে সহায়তা করে আসছে ইরান। যা কোনোভাবেই কাম্য নয়। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় তাই ইরানের সাথে করা এই চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র বেরিয়ে এসেছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন,এই চুক্তি যদি বলবৎ থাকে তো সেটা পুরো যুক্তরাষ্ট্রবাসীর সাথে প্রতারণা করা হবে। আর এটা আমি করতে পারি না। কারণ আমার নির্বাচনে ইশতেহারেই উল্লেখ ছিলো ইরানের সাথে হওয়া পরমাণু চুক্তিটি পুনর্বিবেচনায় আনা হবে। ইরান সন্ত্রাসবাদ সৃষ্টির অন্যতম প্রধান কেন্দ্র। তাই এর কোনো ধরণের চুক্তির সুযোগ নেই। এর পাশাপাশি দেশটির ওপর নতুন করে অবরোধ আরপের সিদ্ধান্তও নিতে চলেছি আমরা।

এদিকে চুক্তি থেকে বেরিয়া যাওয়ার ঘটনায় তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ইরান। দেশটির প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি ক্ষোভ জানিয়ে বলেন, চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র বেরিয়ে যাওয়ার ঘটনায় কোনো সংঘাতময় পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে এর দায়ভার দেশটিকেই নিতে হবে।

ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বলেন, কোনো ধরণের সংকটময় পরিস্থিতির যেনো সৃষ্টি না হয়, সেকারণেই এই চুক্তিতে সই করেছিলো ইরান। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র চাইছে না পরিস্থিতি শান্ত থাকুক। তাই তারা এই চুক্তি থেকে বেরিয়ে গেছে। এখন কোনো ধরণের সংঘাতের সৃষ্টি হলে এর দায় ওয়াশিংটনের। আমরা অন্যান্য বিশ্বশক্তিগুলোর সাথে এরইমধ্যে যোগাযোগ করতে শুরু করেছি।









Leave a reply