মসজিদেই ‘অমুসলিমদের’ জল-খাবারের ব্যবস্থা!

|

মুসলমানদের পবিত্র স্থান মসজিদেই কিনা অ্যাপায়ন ও জল-খাবারের ব্যবস্থা করা হলো অমুসলিমদের! সম্প্রীতি ও সহানুভূতির এমন নজির গড়ে ভারতজুড়ে আলোচনার জন্ম দিয়েছে কেরালার একটি মসজিদ।

মসজিদটির ভেতরে পাশের স্কুলে পরীক্ষা দিতে আসা শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের বিশ্রামের ব্যবস্থা করা হয় যাদের বড় অংশই ছিল অমুসলিম। পাশাপাশি তাদের পানি ও দুপুরের খাবার পানের ব্যবস্থা করেন মসজিদ পরিচালনা কমিটির লোকজন।

রোববার সকালে কেরালার শিবগিরি স্কুলে সিট পড়েছিল পরীক্ষার্থীদের। সকাল থেকেই সেখানে ভিড় করেন অভিভাবকরা। পরীক্ষা শুরুর পরও স্কুলের বাইরেই দাঁড়িয়েছিলেন তারা। পাশের মসজিদের পরিচালনায় দায়িত্বে থাকা লোকজন দেখতে পান অভিভাবকরা প্রচণ্ড গরম, ক্ষুধা ও পানি পিপাসায় কষ্ট পাচ্ছেন। তখন ট্রাস্টের সদস্যরা মসজিদের ভেতরে অভিভাবকদের নিয়ে যান। সেখানে তাদের বিশ্রামের ব্যবস্থা করেন। পাশাপাশি তাদের খাবার ও পানিপানের ব্যবস্থা করা হয়।

মসজিদে অবস্থানরত অমুসলিম অভিভাবকদের উপস্থিতিতেই দুপুরে জোহর নামাজ পড়েন মুসল্লিরা।মসজিদের অমুসিলমদের বিশ্রাম ও আপ্যায়নের বিষয়টি সাধারণ মুসলমানরাও সমর্থন করেছেন। এ নিয়ে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। পরীক্ষা শেষে ছেলেমেয়েদের নিয়ে অভিভাবকরা বাড়ি ফিরে গেছেন।

ভারতজুড়ে যখন ধর্মের নামে উসকানি, বিভেদ মাথাচাড়া দিচ্ছে, তখন মসজিদে সম্প্রীতির নজির গড়ায় স্থানীয় মুসলমানদের প্রশংসা করছেন সুধীজনরা।

যমুনা অনলাইন: এটি









Leave a reply