নারীর ক্ষমতায়নেই হবে টেকসই উন্নয়ন

|

নারীদের শিক্ষা-সুরক্ষা ও সমধিকার নিশ্চিতের মাধ্যমেই বিশ্বে টেকসই উন্নয়ন সম্ভব; এমন মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জাতিসংঘে নারীর অর্থনৈতিক ক্ষমতায়ন শীর্ষক উচ্চ পর্যায়ের আলোচনা সভায় এমন মন্তব্য করেন তিনি।

এর আগে তিনি ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের সাথে এক দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে মিলিত হন। বৈঠকে বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গাদের ব্যাপারে আলোচনা হয়। তাদের আশ্রয় দেয়া মানবাধিকার রক্ষায় বিরল দৃষ্টান্ত উল্লেখ করে আব্বাস বলেন, এ কারণে বাংলাদেশ এখন গোটা বিশ্বেই প্রশংসিত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী জনগণের পাশে থাকার অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেন। এর আগে নারীর ক্ষমতায়ন বিষয়ক এক উচ্চ পর্যায়ের প্যানেল ডিসকাশনে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় তিনি নারী উন্নয়নে বাংলাদেশ সরকারের নেয়া নানা পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন। বলেন, নারীকে অর্থনৈতিক কার্যক্রমে সম্পৃক্ত করতে চাকুরিতে কোটা পদ্ধতি, উদ্যোক্তা তৈরিতে ঋণ সুবিধা, মাতৃত্বকালীন ছুটিসহ নানা পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার। বাংলাদেশের জিডিপিতে নারীর অবদান ৩৪ শতাংশ, এমন তথ্যও দেন প্রধানমন্ত্রী। একই দিন রোহিঙ্গা ইস্যুতে মুসলিম দেশগুলোর জোট ওআইসির কনট্রাক্ট গ্রুপের এক বৈঠকে অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী।









Leave a reply