ফেসবুকের ছবি দেখে ধর্ষককে শনাক্ত করলো নির্যাতিতা

|

স্টাফ রিপোর্টার, মানিকগঞ্জ

নির্যাতনের শিকার হয়েছেন এক সপ্তাহ আগে। কিন্তু তৃতীয় শ্রেনির ওই ছাত্রী ধর্ষকের নাম পরিচয় বলতে পারছিলেন না। ফলে আইনী আশ্রয়ও নিতে পারছিলেন না পরিবার। বৃহস্পতিবার ফেসবুকের ছবি দেখে ধর্ষককে শনাক্ত করেছেন নির্যাতিতা স্কুল ছাত্রী।

রাতেই অভিযুক্ত মো: তমাল ভূইয়া(২৩) কে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। গত ১২ মে মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার বড়টিয়া ইউনিয়নের একটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

মেয়েটির বাবা জানান, তার মেয়ে স্থানীয় একটি প্রাইমারি স্কুলের তৃতীয় শ্রেনির ছাত্রী। ঘটনার দিন গত ১২ মে সে স্কুলে যায়। দুপুরে টিফিনের সময় স্কুলের পাশের একটি বাগানে লিচু কুড়াতে গেলে একই এলাকার নাসির ভূইয়ার বখাটে ছেলে মো: তমাল ভূইয়া গামছা দিয়ে মুখ বেঁধে তাকে ভুট্টা ক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণ করে।

মেয়েটি স্কুলের শিক্ষক ও পরিবারের সদস্যদের এঘটনা জানালেও,তমালের নাম বলতে পারেনি। পরিবারের সদস্যরা বিষয়টি নিয়ে অনুসন্ধান অব্যাহত রাখেন। পরে বৃহস্পতিবার ফেসবুকের ছবি দেখে তমালকে চিহিৃত করে নির্যাতিতা মেয়েটি। বিষয়টি পুলিশকে জানালে রাতেই বখাটে তমালকে গ্রেফতার করা হয়।

স্থানীয়রা জানান, গ্রেফতার তমাল এলাকায় বখাটে ও মাদকসেবী হিসাবে চিহিৃত। তার বিরুদ্ধে পোশাক শ্রমিকসহ অনেক মেয়েকে উত্ত্যক্ত করার অভিযোগ রয়েছে। স্থানীয়ভাবে তাকে একাধিকবার শাসনও করেছেন সমাজপতিরা

তমাল ভূইয়াকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঘিওর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: রবিউল ইসলাম।









Leave a reply