রোহিঙ্গাদের ত্রাণ ঠেকাতে পেট্রোলবোমা!

|

মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের জন্য ত্রাণ সরবরাহ ঠেকাতে পেট্রলবোমা নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে। রাখাইনে রোহিঙ্গাদের জন্য ত্রাণ নিয়ে যাচ্ছিলো আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবক সংস্থা রেডক্রস। পুলিশ ফাঁকা গুলি ছুড়ে পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

রয়টার্সের খবরে বলা হয়, বুধবার রাতে রাখাইনের রাজধানী সিতওয়ে রোহিঙ্গাদের জন্য রেডক্রসের কর্মীরা বিভিন্ন ত্রাণসামগ্রী নৌকায় তুলছিলেন। এসময় ত্রাণকর্মীদের বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন রোহিঙ্গাবিরোধীরা। কারও হাতে লাঠি, কারও হাতে ছিল রড। একপর্যায়ে তারা পেট্রোল বোমাও নিক্ষেপ করে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানিয়েছে, বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে অন্তত ২০০ পুলিশ সদস্য ঘটনাস্থলে হাজির হয় এবং ফাঁকা গুলি ছোড়ে। এতে অন্তত আটজন আহত হয়। এই ঘটনায় ত্রাণকর্মীদের কেউ আহত হননি। রাখাইনে প্রাণভয়ে ঘর থেকে বের না হওয়া রোহিঙ্গাদের জন্য ত্রাণ সরবরাহের উদ্যোগ নেয় রেডক্রস।

গত ২৫ আগস্ট রাখাইনে বেশ কয়েকটি চৌকিতে হামলার জেরে সেখানে সহিংস অভিযান শুরু করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও পুলিশ। এতে অন্তত এক হাজার রোহিঙ্গার মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। সহিংস অভিযানের কারণে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে সোয়া চার লাখ রোহিঙ্গা।

যমুনা অনলাইন/এফকে









Leave a reply