রাজধানীসহ সারা দেশে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত আরও ১৫

|

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মাদকবিরোধী অভিযানে রাজধানীসহ সারা দেশে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আরও ১৫ জন নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার দিবাগত রাত থেকে বুধবার ভোর পর্যন্ত চলা অভিযানে রাজধানীতে তিনজন, মাগুরায় তিনজন, কুমিল্লায় একজন, যশোরে দুজন, নড়াইলে একজন, আশুলিয়ায় একজন, কক্সবাজারে একজন, চট্টগ্রামে একজন, সিরাজগঞ্জে একজন ও চুয়াডাঙ্গায় একজন নিহত হয়েছেন।

র‌্যাব ও পুলিশের দাবি, নিহতরা সবাই মাদক ব্যবসায়ী। তাদের নামে বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।

র‌্যাব’র ভাষ্য, কক্সবাজারের ঝাউবাগানের কবিতা চত্বর এলাকায় মাদক ব্যবসায়ীরা অবস্থান করছে-এমন সংবাদে গভীর রাতে অভিযান চালানো হয়। উপস্থিতি টের পেয়ে র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি করে তারা। র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায় মাদক ব্যবসায়ী মুজিবুর রহমান। উদ্ধার করা হয় ৬ হাজার পিস ইয়াবা ও একটি অস্ত্র। নিহত মুজিবুরের বাড়ি নেত্রকোণার মোহনগঞ্জে।

চুয়াডাঙ্গায় সাতগাড়ি গ্রামে মাদক বিক্রেতারা অবস্থান করছে এমন সংবাদে অভিযান চালায় পুলিশ। এসময় পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি করে মাদক কারবারিরা। আত্মরক্ষায় পাল্টা গুলি করে পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে মাদক বিক্রেতা তানজিল হোসেনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

কুমিল্লার বুড়িচং হয়ে মাদকের চালান যাচ্ছে এমন সংবাদে অভিযান চালায় পুলিশ। এসময় পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি করে মাদক কারবারিরা। আত্মরক্ষায় পুলিশ গুলি করলে মাদক ব্যবসায়ী রেহমত আলী নিহত। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র, গুলি ও গাঁজা উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এছাড়া নড়াইল, সাভার, চট্টগ্রাম ও সিরাজগঞ্জে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ চারজন নিহত হয়েছে। এদের মধ্যে একজন ডাকাত সদস্য।

এদিকে, বেনাপোলের বড় আঁচড়া সীমান্তে মাদক ব্যবসায়ীদের দু’গ্রুপের মধ্যে গোলাগুলিতে দুইজন নিহত হয়েছে। এদের মধ্যে লিটন, অপরজনের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মাগুরাতেও দুই দল মাদক কারবারির মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিনজন নিহত হয়েছে। নিহতরা হলে বাচ্চু চোকদার, কিশোর অধিকারী, রায়হান ঢালী। নিহত সবার বিরুদ্ধে মাদকের একাধিক মামলা আছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

যমুনা অনলাইন: এটি









Leave a reply