‘ভারতকে যা দিয়েছি তা আজীবন মনে রাখবে’

|

আমি কোনো প্রতিদান চাই না। কারো কাছে চাওয়ার অভ্যাস আমার কম, দেয়ার অভ্যাস বেশি। ভারতকে যা দেয়া হয়েছে তা তারা আজীবন মনে রাখবে। বোমাবাজি থেকে আমরা তাদের শান্তি ফিরিয়ে দিয়েছি। ভারতের কাছে চাওয়ার কিছু নেই- ভারত সফর শেষে সংবাদ সম্মেলনে এমন মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জানান, রোহিঙ্গা সমস্যা নিরসনে মায়ানমারকে চাপ দিতে সম্মত হয়েছে ভারত। তবে তিস্তা নিয়ে তেমন কোনো সুখবর দেননি।

বুধবারের সংবাদ সম্মেলনের প্রশ্নোত্তর পর্বের শুরুতেই দেশজুড়ে চলমান মাদক বিরোধী অভিযানে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রশ্ন করা হয়। তিনি জানান, এ অভিযানে নিরীহ কেউ হয়রানির শিকার হয়নি। আর এ অভিযান হঠাৎ করে শুরুও হয়নি। এ অভিযানে এ পর্যন্ত ১০ হাজারের ওপর গ্রেপ্তার হয়েছে। কোন পত্রিকায় কত গ্রেপ্তার হয়, তা বলা হয় না।

শেখ হাসিনা বলেন, যখন কোথাও পুলিশ, র‍্যাব কোথাও অভিযানে যায়, আর সেখানে যদি কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটে থাকলে, কোনো নিরীহ ব্যক্তি শিকার হলে অবশ্যই আমরা ব্যবস্থা নেব। যদি বলেন, ভেজালবিরোধী-মাদকবিরোধী অভিযান বন্ধ করে দিই। ছেলে মাকে, বাবাকে হত্যা করছে মাদকের কারণে। এ ধরনের অভিযান চালাতে গেলে কিছু ঘটনা ঘটে।

মাদকের গডফাদারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে কি না—এমন প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যে-ই গডফাদার হোক ধরা হবে। আমি যখন ধরি, ভালো করেই ধরি। জানেন তো। কার ভাই, কার আত্মীয় তা দেখা হবে না।

ভারত সফর নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন। লিখিত বক্তব্যে তুলে ধরেন, বাংলাদেশ ভবন উদ্বোধন, ডি লিট ডিগ্রি গ্রহণসহ খুটিনাটি।

ভারত সফর নিয়ে বিএনপির মন্তব্যের সমালোচনা করে বলেন, তাদের কাছে আওয়ামী লীগের চাওয়ার কিছু নেই। বরং বিএনপি বিভিন্ন সময়ে ভারতে কাছে ধর্ণা দিয়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী জানান, তিনি কোনো ধরনের পুরস্কারের জন্য লবি করার পক্ষপাতী না। নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য তার কোনো আগ্রহ নেই। বরং দেশের গরিব-দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে পারলেই খুশি।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply