‘রোজা ভাঙার গজবে ইনজুরিতে সালাহ’

|

চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদ ডিফেন্ডার সার্জিও রামোসের ভয়াবহ বাজে ট্যাকলের বলি হয়ে ইনজুরিতে পড়েছেন মোহাম্মদ সালাহ। এতে দুয়ারে কড়া নাড়া রাশিয়া বিশ্বকাপে তার খেলা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে।

কুয়েতের ধর্মপ্রচারক মুবারাক আল-বাথালির দাবি, খোদায়ি গজবের কারণে মিসরীয় ফরোয়ার্ড ইনজুরিতে পড়েছেন।

তিনি বলেন, ফাইনাল লড়াইয়ে রোজা ভাঙায় সালাহর ওপর সর্বশক্তিমান সৃষ্টিকর্তার তরফ থেকে গজব বর্ষিত হয়েছে।

সোমবার এক টুইটবার্তায় মুবারাক বলেন, ইনজুরির মাধ্যমে লিভারপুল সুপারস্টারকে শাস্তি দিয়েছেন প্রভু। কারণ, তিনি রোজা ভঙ্গ করেছিলেন।

এক খ্রিস্টীয় যাজকের ভাষ্য অনুযায়ী, শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে সালাহকে রোজা রাখা থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছিল। তা সত্ত্বেও রোজা রেখেছিলেন। তবে শেষ পর্যন্ত থাকেননি। ভ্রমণ ক্লান্তি সারতে তা ভেঙে ফেলেন তিনি।

আল-বাথালি বলেন, মহান আল্লাহ তাকে (সালাহ) শাস্তি দিয়েছেন। দুর্ভাগ্যবশত, তিনি সেই বোঝা বয়ে বেড়াচ্ছেন। অনেকে মনে করেন, প্রচেষ্টা ও পরিশ্রম দিয়ে ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটানো যায়, জীবন নির্বাহ করা যায়। কিন্তু না, জীবনটা সর্বস্রস্টার হাতে। শুধু শ্রম দিয়ে ভাগ্যোন্নয়ন ঘটানো যায় না।

সম্ভবত, এতেই তার (সালাহ) মঙ্গল নিহিত বলে মনে করেন এ ধর্ম প্রচারক। তার আশা, ইনজুরিকে শিক্ষা হিসেবে নেবেন সালাহ। মনে রাখবেন যে, জগতের সবকিছুই আল্লাহর ইচ্ছায় হয়।

তিনি যোগ করেন, গোটা বিশ্বের মুসলিমদের দূত সালাহ। যিনি পশ্চিমা দেশে মুসলমানদের সম্পর্কে ধারণা পাল্টে দিয়েছেন। পজিটিভ ইমেজ তৈরি করেছেন।

সালাহর অন্য অভ্যাসেরও ভূয়সী প্রশংসা করেন আল-বাথালি। দলের সতীর্থরা যখন হরহামেশা মদ্যপান করেন, তখন তা থেকে দূরে থাকেন মিসরীয় কিং।









Leave a reply