‘মসজিদকে সিনেমা হল বানাচ্ছে সৌদি যুবরাজ’

|

সৌদি আরবের ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান মসজিদকে সিনেমা হল বানাচ্ছেন বলে দাবি আল কায়েদার। তার সংস্কার কর্মসূচিকে পাপাচার প্রকল্প আখ্যা দিয়ে হুশিয়ারি জানিয়েছে জঙ্গি গোষ্ঠীটি। যুবরাজ সালমানের কার্যক্রমকে ‘পশ্চিমা অযৌক্তিক প্রকল্প’ বলে নিন্দা জানিয়ে আল কায়েদা এক বিবৃতিতে বলেছে, এতে দেশটিতে ব্যাপক দুর্নীতি ও নৈতিক অবক্ষয়ের দরজা খুলে যাবে।

বছরখানেক আগে সৌদি সিংহাসনের উত্তরসূরি হওয়ার পরে দেশটির সমাজে নতুন পরিবর্তনের হওয়া বইয়ে দেন মোহাম্মদ বিন সালমান। বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক কার্যক্রমে হাত দেন তিনি। তার উদ্যোগে দেশটিতে প্রেক্ষাগৃহ চালু হয়েছে। গাড়ি চালাতে নারীদের ওপর নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে নেয়া হচ্ছে। সৌদি যুবরাজ দেশটির ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর সমালোচনা করে উদারপন্থী ইসলামের দিকে ফিরে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

সমালোচকদের মতে, নিজের ক্ষমতা সুসংহত করতেই যুবরাজ সালমান তথাকথিত সংস্কার কর্মসূচি চালাচ্ছেন।

এর আগে, গত এপ্রিলে জেদ্দায় ওয়ার্ল্ড রেসলিং এন্টারটেইনমেন্টের (ডব্লিউডব্লিউই) আয়োজনের পর আল কায়েদা তাদের ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছে, নারী-পুরুষের জমায়েতের সামনে বিদেশি অবিশ্বাসী রেসলাররা তাদের যৌনাঙ্গ প্রদর্শন করেছে। শরীরের ক্রুশ চিহ্ন আঁকা ছিল।

যুবরাজ সালমানের সংস্কার কর্মকাণ্ড সৌদি সমাজের বাস্তবতায় নতুন কিছুই বটে। এ নিয়ে দেশটির ভেতরে বাইরে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে।

যমুনা অনলাইন: এটি









Leave a reply