বাংলাদেশকে হোয়াইট ওয়াশ করলো আফগানিস্তান

|

আফগানিস্তানের বিপক্ষে হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর ম্যাচে শেষ পর্যন্ত ১ রানে হারলো বাংলাদেশ। শেষ মুহূর্তে জয়ের সম্ভাবনা তৈরি করেও হোয়াইট ওয়াশ হতে হয়েছে বাংলাদেশকে। শেষ বলে বাংলাদেশের ৪ রানের দরকার ছিলো। আরিফুল হক ভালো একটি শট নিলেও দুর্দান্ত ফিল্ডিংয়ের কারণে বাংলাদেশের জেতার স্বপ্ন ভেঙে যায়।

এর আগে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে আফগানিস্তান টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিন্ধান্ত নেয়। ৬ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশকে ১৪৬ রানের টার্গেট দেয় আফগানিস্তান।

১৪৬ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে ৮.৩ ওভারে স্কোর বোর্ডে ৫৩ রান জমা করতেই ফিরে গেছেন তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার ও লিটন কুমার দাস সাকিব আল হাসান। এরমধ্যে ২ উইকেট হারায় রান আউটে।

৩য় ওভারে মাত্র ৫ রান করে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে যায় তামিম ইকবাল। এরপর ৬ষ্ট ওভারেই রান আউটে সৌম্য সরকার ও লিটন দাসের উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এরমধ্যে সৌম্য ১৫ ও লিটন দাস ১২ রান করে। মুশফিক ও সাকিব ক্রিজে থেকে বাংলাদেশকে এগিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু নবম ওভারে করিম জানাতের বলে দুর্দান্ত ক্যাচে মাত্র ১০ রান করেই সাজঘরে যেতে হয় সাকিবকে।
মুশফিক ৪৬ ও মাহমুদুল্লাহ ৪৫ রান করে। শেষ পর্যন্ত ৬ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ সংগ্রহ করে ১৪৪ রান।

অপরদিকে আফগানিস্তানে ব্যাটিংয়ের সময় বাংলাদেশকে ব্রেক থ্রু এনে দেয় নাজমুল ইসলাম অপু। অবশ্য তার আগেই উদ্বোধনীতে ৭.৪ ওভারে ৫৫ রানের জুটি গড়েন মোহাম্মদ শাহজাদ ও উসমান গনি। অপুর স্পিনের শিকার হওয়ার আগে ২২ বলে ৩ চার ও ১ ছক্কায় ২৬ রান করে ফেরেন আফগানিস্তান সেরা ওপেনার শাহজাদ।

নাজমুল অপুর পর আফগান শিবিরে আঘাত হানেন আবু জায়েদ রাহী। নবম ওভারে বোলিংয়ে এসেই আফগানিস্তানের অন্য ওপেনার উসমান গনিকে সাজঘরে পাঠান রাহী। আবু জায়েদের শর্ট বলে পুল করতে গিয়ে বিভ্রান্ত হন উসমান গনি। তার গ্ল্যাভসে লেগে বলটি গিয়ে জমা পড়ে উইকেটকিপার মুশফিকুর রহিমের হাতে। প্যাভেলিয়নে ফেরার আগে ২৬ বলে ১৯ রান করেন গনি।

এরপর ১৩তম ওভারে আরিফুল হক সাজঘরে পাঠায় আসগরকে। সাব্বিরের হাতে ক্যাচ দেয়ার আগে আসগর ৩ টি ছয় মেরে ২৭ রান সংগ্রহ করে। এর পর ১৫তম ওভারে মোহাম্মদ নবীকে সাজঘরে পাঠায় আবু জায়েদ। নবী ৫ বলে ৩ রান করে মাহমুদুল্লাহ হাতে ক্যাচ দেয়।

১৯ তমে ওভারে সাকিব ১৫ রানে নাজিবুল্লাকে আউট করেন। শেষতম ওভারে নাজমুল ইসলাম শফিকুল্লাহকে সাজ ঘরে পাঠায়। শেষ পর্যন্ত ৬ উইকেট হারিয়ে ১৪৫ রান করে আফগানিস্তান।

এদিকে ম্যান অব ম্যাচ হয়েছেন বাংলাদেশের মুশফিকুর রহিম।









Leave a reply